নিহত মামুন হোসেন।

যশোরে পূর্ব বিরোধের জের ধরে মামুন হোসেন (৩০) নামে এক যুবককে কুপিয়ে ও বোমা হামলায় হত্যা করা হয়েছে। ৯ ফেব্রুয়ারি শনিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে শহরতলীর শেখহাটি জামরুলতলা এলাকায় হামলা করে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ সময় আরিফ হোসেন (২৮) নামে আরেকজন আহত হয়েছেন।

নিহত মামুন শহরের ঘোপ সেন্ট্রাল রোডের রবিউল ইসলামের বাড়ির ভাড়াটিয়া মৃত আব্দুর রউফের ছেলে। তিনি একটি মোবাইল ফোন ব্যবসায়ী। আর আহত আরিফ হোসেন ঘোপ বাবলাতলা এলাকার বজলু খলিফার ছেলে। তিনি ছাত্রলীগকর্মী ও এম এম কলেজের ছাত্র।

যশোর কোতোয়ালি থানার ওসি অপূর্ব হাসান সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, তিনি নিহতের স্বজনদের কাছ থেকে প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছেন, মামুন সন্ধ্যায় শেখহাটি জামরুলতলা এলাকার রাসেলের চায়ের দোকানে বসেছিলেন। এ সময় তার উপর হামলা করা হয়। তাকে কুপিয়ে ও বোমা হামলা করে হত্যা করা হয়েছে। কী কারণে হত্যা করা হয়েছে সে বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে জানতে পারেনি পুলিশ। তবে একটি মেয়েলি ঘটনায় স্থানীয় একটি গ্রুপের সাথে তাদের বিরোধ ছিল। সেই ঘটনার জের কিনা অন্য কোনো ঘটনার সূত্র ধরে হত্যাকাণ্ড হয়েছে সেটা জানতে তদন্ত না করে নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না বলে জানান ওসি।

যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক বজলুর রশিদ টুলু জানিয়েছেন, মামুনের শরীরের বিভিন্ন স্থানে কোপানো ও বোমা হামলার চিহ্ন রয়েছে। হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

এইচ আর তুহিন/যশোর