ধর্ষণ। প্রতীকী ছবি

যশোরের চৌগাছা উপজেলায় খেলার সময় তুলে নিয়ে ছয় বছর বয়সী এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। শনিবার বিকেলে স্বরূপদাহ ইউনিয়নের দেবালয় গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

শিশুটিকে প্রথমে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে পাঠানো হয়। অভিযুক্ত শিব রায় (১৯) একই উপজেলার দেবালয় গ্রামের সুকুমার রায়ের ছেলে।

চৌগাছা থানার ওসি রিফাত খান রাজিব বলেন, শিশু ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত পলাতক রয়েছে। তাকে আটকের চেষ্টা চলছে। মামলা প্রক্রিয়াধীন। বিষয়টি পুলিশ তদন্ত করছে।

ভিকটিমের স্বজনরা জানান, শিশুটি পাশের গ্রাম খড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশু শ্রেণির শিক্ষার্থী। শনিবার একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠান উপলক্ষে অন্য শিশুদের সাথে বাড়ির বাইরে খেলা করছিল। আর মেয়েটির মা পাশের একটি মন্দিরে পূজা-আর্চনায় গিয়েছিলেন। হঠাৎ শিশুটি কাঁদতে কাঁদতে দৌড়ে বাড়ির দিকে আসে।

শিশুটির মা কোলে নিয়ে রক্তক্ষরণ হতে দেখলে কারণ জানতে জানতে চাইলে সে জানায়- একই গ্রামের সুকুমারের পুত্র শিব রায় (১৯) তাকে কষ্ট দিয়েছে। প্রচুর রক্তক্ষরণ হওয়ায় তাকে দ্রুত চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। পরে চিকিৎসক যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে রেফার করেছে।

চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক মুঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, শিশুটিকে ধর্ষণ করা হয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হওয়ায় তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে যশোর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

এইচ আর তুহিন/যশোর