যশোরে ডেঙ্গু রোধে ব্যবস্থা নেই

যশোরেও বাড়ছে প্রতিদিন নতুন নতুন ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা। শুধু মাত্র ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ২২ জন রোগী। এ নিয়ে যশোরে এ পর্যন্ত ৯০৪ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে দুইজন মারা গেছেন।

সদর উপজেলার চুড়ামনকাটি গ্রামে ১১ জন এবং বাঘারপাড়া উপজেলার প্রেমচারা গ্রামে ১০জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছে।

যশোর সিভিল সার্জন অফিস থেকে জানা গেছে- চুড়ামনকাটি গ্রামে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছে চিকিৎসা নিয়েছেন যশোর সদর উপজেলার চুড়ামনকাটি গ্রামের করিম (৪০), রহিদ (২৫), মনির (৩৫), মেহের (৪৭), আজিজুল (১৯), খায়রুল (১৯), শামসুর রহমান (৫০), রিপন (২২), নাহিদ হাসান (১৬), শিপলু (২২), ইব্রাহিম (২২)।
এছাড়া বাঘারপাড়া উপজেলার বন্দবিলা ইউনিয়নের প্রেমচারা গ্রামে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছে কবির হোসেন (২৫), লাল্টু মোল্যা (৩৫), ইব্রাহিম হোসেন (৩০), মুনতাজ আলী (৬০), সফিউল্লাহ (২২), জান্নাতি (১৯), মাসুম (৩৫), আব্দুল জলিল (৬৫), রাজির হোসেন (১৫) এবং সুমিয়া (মুনতাজের স্ত্রী)।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন চুড়ামনকাটি গ্রামের আজিজুল জানান, যশোরে ডেঙ্গুতে আক্রান্তের সংখ্যা অন্যান্য জেলা থেকে বেশি। আর সেই যশোরের আমাদের গ্রামে আক্রান্তের সংখ্যা ১১ জন। যা খুবই অস্বাভাবিক হলেও সত্য।

প্রেমচারা গ্রামের সফিউল্লাহ জানান, শুনেছি আমাদের গ্রামের ১০জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত। আশংকার মধ্যে আছি। গ্রামবাসীর মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়েছে। অনেকেই এলাকা ছেড়ে চলে গেছে।

যশোর জেনারেল হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. আবুল কালাম আজাদ জানান, আজ শনিবার পর্যন্ত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১৩৩ জন। নতুন ভর্তি হয়েছে ২২ জন। এ পর্যন্ত যশোর জেনারেল হাসপাতালে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন ৫৮১জন। ডেঙ্গু চিকিৎসার জন্য কোন প্রকার কীট বা ডিভাইসের সমস্যা নেই। কর্তৃপক্ষ আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করছে।

যশেরের সিভিল সার্জন ডা. দিলীপ কুমার রায় জানান, যশোর জেলায় এ পর্যন্ত ৯০৪ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ৫৮১ জন চিকিৎসা নিয়েছেন। বাকীরা যশোরের বিভিন্ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং বেসরকারি ক্লিনিকে চিকিৎসা নিয়েছেন।

ইয়ানূর রহমান/যশোর