ভুটানের প্রধানমন্ত্রীকে লাল গালিচা সংবর্ধনা এবং গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়। ছবি: সংগৃহীত

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে যাচ্ছেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং । তিনি এ কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থী ছিলেন। এখানে পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠান উপভোগ করবেন। ক্যাম্পাসের স্মৃতিবিজড়িত স্থানগুলো পরিদর্শন করবেন তিনি।

১৪ এপ্রিল রবিবার ডা. শেরিং হেলিকপ্টারে ঢাকা থেকে ময়মনসিংহের বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের হেলিপ্যাডে অবতরণ করবেন। কর্মসূচি শেষে রোববারই ফের ঢাকায় ফিরবেন তিনি। ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রীসহ দেশটির রাজপরিবারের ২২ সদস্য তার সঙ্গে থাকবেন।

ভুটানের প্রধানমন্ত্রী তার স্মৃতিবিজড়িত গ্যালারি, ছাত্রাবাস, ছাত্র ক্যান্টিন, ডক্টরস ক্যান্টিন ও ইন্টার্নশিপের ওয়ার্ড পরিদর্শনের ইচ্ছা পোষণ করেছেন।

তার আগমনে উচ্ছ্বসিত প্রতিষ্ঠানটির বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা। কলেজে বিরাজ করছে উৎসবের আমেজ। ডা. শেরিংকে বরণ করতে রঙিন সাজে সাজানো হয়েছে কলেজ ক্যাম্পাস।

লোটে শেরিংয়ের সহপাঠী ডা. শফিকুল বারী তুহিন জানান, তারা ১৯৯১ সালে এ কলেজে এমবিবিএসে ভর্তি হন এবং সেশনজট থাকায় ১৯৯৮ সালে পাস করেন। পরে শেরিং ঢাকায় জেনারেল সার্জারি বিষয়ে এফসিপিএস করেন। তিনি ২০০৩ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশে ছিলেন।

তুহিন জানান, ডা. শেরিং খুব মেধাবী ছাত্র ছিলেন। বাংলাদেশে অবস্থানকালে তিনি বন্ধুদের গ্রামের বাড়ি ঘুরতে যেতেন। বিভিন্ন সময় আলোচনার ফাঁকে দেশে গিয়ে রাজনীতি করবেন বলেও জানিয়েছিলেন তিনি।

সরকারি চাকরি ছেড়ে ২০১৩ সালে রাজনীতিতে সক্রিয় হওয়ার পর অল্প সময়ের মধ্যেই ডা. শেরিংয়ের দল ডিএনটি চমক সৃষ্টি করে। ২০১৮ সালের নির্বাচনে ডিএনটি জয়ী হলে তিনি হন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে অধ্যয়নরত আবদুল্লাহ আল হাসান বলেন, ‘আমাদের এক বড় ভাই, এ কলেজের শিক্ষার্থী ভুটানের প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন। তিনি আজ আমাদের মাঝে আসছেন। আমরা খুবই আনন্দিত। তার আগমনকে আমরা স্মরণীয় করে রাখতে চাই।

কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন বলেন, ডা. শেরিংয়ের আগমন এখানকার শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের জন্য গর্বের বিষয়। তিনি অডিটরিয়ামে অতিথি ও ছাত্র-শিক্ষকদের উদ্দেশে বক্তব্য দেবেন। পরে তার ছাত্রজীবনের বন্ধুদের সঙ্গে মিলিত হবেন। তিনি তার স্মৃতিবিজড়িত জায়গাগুলো পরিদর্শন করবেন।

ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসক ড. সুবাস চন্দ্র বিশ্বাস জানান, ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ড. লোটে শেরিংয়ের সফর উপলক্ষে যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।

ময়মনসিংহ পুলিশ সুপার শাহ আবেদ হোসেন জানান, ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ড. লোটে শেরিংয়ের সফর উপলক্ষে নিছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, চার দিনের সরকারী সফরে শুক্রবার সকালে বাংলাদেশে এসেছেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ড. লোটা শেরিং।

আজকের পত্রিকা/এমএআরএস