মৌচাক রাস্তা

বাহুবল বাজার থেকে মহাসড়ক (মৌচাক) পর্যন্ত রাস্তাটি প্রশস্তকরণসহ ঢালাই সহযোগে নির্মাণ কাজ এক ব্যক্তির বাধায় আটকে আছে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন।

এলাকাবাসী জানান, ওই রাস্তার বাহুবল বাজার মোড় ২০ ফুট হওয়ার কথা থাকলেও কোন কোন ব্যক্তি ওই মোড়ে সরকারি জায়গায় দোকান তৈরী করে ব্যবসা করে যাচ্ছে। তাদের আপত্তির মুখে ঠিকাদার কাজ করতে পারছে না। ফলে কবিরপুরসহ আশপাশ এলাকার মানুষের মাঝে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে।

রাস্তার জটিলতা নিরসনকল্পে এলাকাবাসী জনস্বার্থে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। তারই প্রেক্ষিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আয়েশা হক বিষয়টি বিধি মোতাবেক সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, চলতি অর্থ বছরে প্রায় ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে বাহুবল টু মানিকা বাজার রাস্তা মেরামতের উদ্যোগ নেয়া হলে যথারীতি কাজও শুরু হয়। এর মধ্যে বাহুবল টু মহাসড়ক পর্যন্ত প্রায় দেড় কোটি টাকার ৮ সিসি ঢালাইয়ের মাধ্যমে নির্মাণের কাজ শুরু হয়। কিন্তু বাধা হয়ে দাড়ায় স্থানীয় কয়েক ব্যক্তি। তারা গ্রামবাসীকেও পরোয়া করছে না।

ফলে যে কোন সময় ঘটতে পারে অঘটন। রাস্তার জটিলতা নিয়ে উপজেলা প্রকৌশলী আনিছুর রহমান ভূইয়াঁর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন- বাহুবল বাজার হতে মহাসড়ক পর্যন্ত রাস্তাটি ১৮ ফুট অনুসারে কাজ চলছে। রাস্তার মোড় বিধি মোতাবেকই কাজ সমাপ্ত হবে। রাস্তার কার্যক্রম সুন্দরভাবে সমাপ্ত করতে এলাকাবাসীরও সহযোগিতা প্রয়োজন।

সাঈদ আহমদ/বাহুবল