ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল মোবাইল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল পোস্টার। ছবি: সংগৃহীত

শুরু হতে যাচ্ছে মোবাইল দিয়ে বানানো সিনেমা নিয়ে উৎসব। ১৫ ও ১৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল মোবাইল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের ৫ম আসর বসতে যাচ্ছে ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশ (ইউল্যাব) এর স্থায়ী ক্যাম্পাসে।

ইউল্যাবের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রতিযোগিতার এবারের আসরে ভারত, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া, ফ্রান্স, কানাডা, স্পেন, ফিলিপাইন, ব্রাজিল, চীন, জার্মানি, আফগানিস্তান, নেপাল, শ্রীলঙ্কা, সুইডেনসহ ৩৪টি দেশ থেকে যথাক্রমে ‘কম্পিটিশন’, ‘ওয়ান মিনিট ফিল্ম’ এবং ‘স্ক্রিনিং’ ক্যাটাগরিতে সর্বমোট ৯৫টি চলচ্চিত্র জমা পড়েছে। এসব চলচ্চিত্রের বিচারকার্য সম্পন্ন করেছেন চলচ্চিত্র নির্মাতা প্রসূন রহমান, সিনেমাটোগ্রাফার রাশেদ জামান ও চলচ্চিত্রবিষয়ক প্রবন্ধ লেখক বিধান রিবেরু।

বিচারকমণ্ডলীর বিচারে ‘কম্পিটিশন’ বিভাগে ২৮টি চলচ্চিত্র থেকে ১০টি, ‘ওয়ান মিনিট ফিল্ম’ বিভাগের তিনটি চলচ্চিত্র থেকে দুটি এবং ‘স্ক্রিনিং’ বিভাগে ৬৪টি চলচ্চিত্র থেকে ২৬টি চলচ্চিত্রসহ মোট ৩৮টি চলচ্চিত্র চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত হয়েছে।

আগামী ১৫ ও ১৬ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল মোবাইল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালকে সামনে রেখে মোবাইলের মাধ্যমে আন্তর্জাতিকমানের সিনেমা লক্ষ্যের তৈরিতে ইউল্যাবে হয়ে গেছে এক কর্মশালাও।

এ কর্মশালাতে মোবাইলে আন্তর্জাতিকমানের সিনেমা তৈরির জন্য যাবতীয় বিষয়ে পাঠদান, আলোচনা-সমালোচনা, সিনেমা পরিদর্শন ও সিনেমা বানানোর অনুশীলন করানো হয়। আয়োজিত কর্মশালায় প্রশিক্ষক হিসেবে ছিলেন সাংবাদিক কাবিল খান জামিল ও চলচ্চিত্র নির্মাতা তানহা জাফরিন।

কর্মশালাটির আয়োজক হিসেবে ছিল ইউল্যাবের কো-কারিকুলার বিষয়ক শিক্ষানবিশ সংগঠন ‘সিনেমাস্কোপ’। মোবাইল সিনেমার উন্নয়নের লক্ষ্যে বিগত চার বছর ধরে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল মোবাইল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল (ডিআইএমএফএফ) আয়োজন করে আসছে ‘সিনেমাস্কোপ’।