শিশু । প্রতীকী ছবি

সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার মধ্য বড়দল গ্রামের আজিজুল ইসলাম গাজীর (৫০) বিরুদ্ধে সাড়ে চার বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় রোববার আশাশুনি থানায় মামলা দায়ের করেছেন নির্যাতিত শিশুটির বাবা।

এর আগে শনিবার বিকেলে শিশুটিকে পেয়ারা খাওয়া ও মোবাইলে ছবি দেখার নাম করে নিজ বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করে আজিজুল। ধর্ষক আজিজুল ইসলাম গাজী বড়দল গ্রামের মোহাম্মদ গাজীর ছেলে।

মামলার এজাহারে শিশুটির বাবা বলেন, শনিবার বিকেলে বড়দল গ্রামে নানার বাড়িতে থাকা সাড়ে চার বছরের শিশুকে পেয়ারা খাওয়ার লোভ দেখিয়ে ও মোবাইলে ছবি দেখানোর নাম করে নিজ বাড়িতে নিয়ে যায় আজিজুল ইসলাম গাজী। পরে মলম জাতীয় কোন পদার্থ ব্যবহার করে তার যৌনাঙ্গ ক্ষত বিক্ষত করে নরপিচাশ আজিজুল ইসলাম গাজী। পরে ওই শিশু কাঁদতে কাঁদতে বাড়িতে ফিরে মাকে ঘটনাটি জানায়।

এ বিষয়ে আশাশুনি থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মনিরুজ্জামান জানান, শিশুটিকে যৌন নির্যাতনের ঘটনায় শিশুটির বাবা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। শিশুটিকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ধর্ষককে গ্রেফতারে অভিযান চলানো হচ্ছে।

আজকের পত্রিকা/বৈশাখী