দ্বিতীয় মেয়াদে ভারতে সরকার গঠন করতে যাওয়া নরেন্দ্র মোদীকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি : সংগৃহীত

শুভেচ্ছা বার্তায় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘এই জোরালো রায়ে আপনার ওপর বিশ্বের সবচেয়ে বড় গণতান্ত্রিক দেশের জনগণের বিশ্বাস ও আস্থার প্রতিফলন ঘটেছে।’

শেখ হাসিনা সুবিধাজনক সময়ে নরেন্দ্র মোদিকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণও জানান। শেখ হাসিনা তার বার্তায় বলেন, ‘ভারতের সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে আপনার গতিশীল নেতৃত্বে ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্সের (এনডিএ) বিপুল বিজয়ে আমি বাংলাদেশের জনগণ, সরকার এবং নিজের পক্ষ থেকে আপনাকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। বাংলাদেশ সবসময় বিভিন্ন ক্ষেত্রে ভারতের সঙ্গে সম্পর্ককে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়, যা পারস্পরিক সুনাম, আস্থা এবং শ্রদ্ধাবোধের দ্বারা চলে আসছে।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশের প্রতি ভারতের সমর্থনের কথাও স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমাদের জনগণ আমাদেরকে নতুন করে যে ম্যান্ডেট দিয়েছে, তার ওপর নির্ভর করে দুই দেশের সম্পর্ক আরও শক্তিশালী হবে এবং নতুন উচ্চতায় পৌঁছাবে।’

শুভেচ্ছা বার্তায় শেখ হাসিনা ভারতের জনগণের শান্তি, সুখ এবং উন্নতি কামনা করার পাশাপাশি নরেন্দ্র মোদির ‍সুস্বাস্থ্যও কামনা করেন।

ভারতীয় পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ লোকসভার ৫৪৩টি আসনের মধ্যে তামিলনাড়ুর একটি বাদে সবকটি আসনে এবার নির্বাচন হয়েছে। এর মধ্যে সরকার গঠনের জন্য কোনো দল বা জোটকে পেতে হবে ২৭২টি আসন।

ভোট গণনার শুরু থেকেই এগিয়ে রয়েছে বিজেপি। বিপুল ব্যবধানে দলটির জয় এখন প্রায় নিশ্চিত। ইতোমধ্যে জয়োৎসবের আয়োজন শুরু করে দিয়েছে বিজেপি। সন্ধ্যায় নরেন্দ্র মোদিকে সংবর্ধনা জানানোর কথা রয়েছে। স্থানীয় সময় সকাল ৮টায় শুরু হয় ভোট গণনা। ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে ৬৭০টি দলের ৮ হাজার প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৯০ কোটির মধ্যে ভোট দিয়েছেন ৬০ কোটি ৩ লাখ ভোটার।

১১ এপ্রিল ভোট শুরু হয়ে শেষ হয় ১৯ মে। ৫৪৩টি আসনের মধ্যে ৫৪২টি আসনে নির্বাচন হয়েছে। সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজন ২৭২ আসন। দুপুর নাগাদ যে ফল প্রকাশিত হয়েছে, তাতে মোদির দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) নেতৃত্বাধীন জোট এনডিএ তিনশর বেশি আসনে জিতে যাচ্ছে। গতবার শুধু বিজেপির আসন ছিল ২৮২টি, এবার তাদের পদ্মফুল ৩০০’র বেশি আসনে জয়ী হচ্ছে, জোটের আসন ছাড়িয়ে যাচ্ছে সাড়ে তিনশ।

আজকের পত্রিকা/আ.স্ব/জেবি