সোমবার সচিবালয়ে স্বাস্থ্য সংবাদ সম্মেলন করেন। ছবি : সংগৃহীত

আগামী ২ জুলাইয়ের মধ্যে মেয়াদোত্তীর্ণ সব ওষুধ ধ্বংসের নির্দেশ দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বরেছেন, শুধু মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ নয়, ভেজাল ও নকল ওষুধ বেচাকেনা বন্ধে মনিটরিং বাড়ানো হয়েছে। যাতে কোনোভাবেই মানুষের স্বাস্থ্যহানি না ঘটে।

২৪ জুন সোমবার মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধের বিষয়ে সরকারের গৃহিত পদক্ষেপ নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ নির্দেশ দেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘২ জুলাইয়ের মধ্যে মেয়াদ উত্তীর্ণ সব ওষুধ ধ্বংস করেন। এজন্য সংশ্লিষ্টদের ইতিমধ্যে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে’।

তিনি বলেন, ‘ওষুধ শিল্প সমিতি, ড্রাগ অ্যান্ড কেমিস্টসহ স্টেক হোল্ডারদের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। তাদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, যেন তারা নিজেরাই ফার্মেসি থেকে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ নিয়ে যায়। নির্দেশনা অনুযায়ী যদি কেউ কাজ না করেন তাহলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বরং আগের চাইতে আমরা কঠোর থাকব’।

এ সময় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব আসাদুল ইসলাম, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদ, ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আজকের পত্রিকা/আর.বি