মেজাজ ঠিক রাখতে না পারার কারনে বেশ খারাপ সময় পার করতে হতে পারে বেলকে। ছবি:মেজরমাগেন

অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে নিজেদের লিগ পর্বের ম্যাচে বদলি হিসেবে মাঠে নামেন দলের অন্যতম সেরা তারকা গ্যারেথ বেল। কিন্তু মাঠে নামার পর অ্যাটলেটিকো সমর্থকদের দুয়ো ধ্বনি শুনতে হয়েছে তাকে। যে কারণে মোটামুটি ক্ষেপেই ছিলেন ওয়েলসের এই তারকা। ম্যাচের ৭৩ মিনিটে যেই না দলের হয়ে তৃতীয় গোলটি করলেন, অমনি নিজের সব রাগ-ক্ষোভ যেন ঝেড়ে ফেললেন দুয়ো ধ্বনি দেওয়া সমর্থকদের ওপর।

ওয়ানডা মেট্রোপোলিটানো স্টেডিয়ামে গোলের উদযাপন করতে গিয়ে ডান হাত মাথা বরাবর নিয়ে বেল তাক করেন গ্যালারিতে উপস্থিত দর্শকদের দিকে। অর্থ্যাৎ দুয়ো ধ্বনির পাল্টা দেন তিনি গোল উদযাপন করতে গিয়ে। হাত তুলে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করলেন, অসম্মানজনক ইঙ্গিত করলেন দর্শকদের দিকে।

তবে, লা লিগা কর্তৃপক্ষ ভিডিও ফুটেজের ভিত্তিতে এ নিয়ে রিপোর্ট তৈরি করেছে এবং তারা এটাকে পাঠিয়ে দিয়েছে স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের কম্পিটিশন কমিটির কাছে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, ‘ম্যাচের ৭৩তম মিনিটে গ্যারেথ বেল তার দলের তৃতীয় গোল করেন। যাকে আবার স্থানীয় সমর্থকরা প্রথম থেকেই দুয়ো ধ্বনি দিয়ে যাচ্ছিল। গোল করার পর তিনি তার ডান হাত মাথার কাছে নিয়ে দর্শকদের উদ্দেশ্যে অশ্লীল ভঙ্গি করেন। এরপর আরও একটি অঙ্গভঙ্গি করেন যা অশ্লীল এবং এক হাত দিয়ে আরেক হাতকে কেটে ফেলার ভঙ্গি করেন।’

মেজাজ ঠিক রাখতে না পারার কারনে তাই বেশ খারাপ সময় পার করতে হতে পারে বেলকে। যেখানে খেলোয়াড়দের এ ধরনের অশ্লীল অঙ্গভঙ্গির জন্য শাস্তি হিসেবে ন্যুনতম ৪ ম্যাচ থেকে সর্বোচ্চ ১২ ম্যাচ পর্যন্ত শাস্তির বিধান রাখা হয়েছে। গ্যারেথ বেলের বিরুদ্ধে যদি এই অভিযোগ সত্যি প্রমাণিত হয়, তাহলে ৪ থেকে ১২ ম্যাচ নিষিদ্ধ হতে পারেন তিনি। আর না হলেও ১ থেকে ৩ ম্যাচের নিষেধাজ্ঞার সম্ভাবনা রয়েছে তার।

আজকের পত্রিকা/এসএমএস/সিফাত