মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে বুধবার ভোর রাত থেকে সকাল ১১ টার মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৩ জন রোগীর মৃত্যু হয়।

তারা সকলে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন ছিলেন। জহির (৪০) নামের একজন গত ২ তারিখে করোনার উপসর্গ নিয়ে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হন।

৩১ তারিখে সিরাজুল ইসলাম (৪৫) আরেক রোগী করোনার উপসর্গ নিয়ে এসে ভর্তি হন। ৩ দিন চিকিৎসার পর আজ সকালে সিরাজ এবং গতকাল রাতে ভর্তি হওয়া জহির আজ মারা যায়।

এর আগে গতকাল রাতে তাদের অবস্থা খারাপ হলে তাদেরকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার জন্য পরামর্শ দিলেও স্বজনরা সকালে নিবে বলে চিকিৎসকরা জানায়।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় প্রেরন করে কিন্তু এখনও রেজাল্ট আসেনি।

মৃত জহির সদর উপজেলার মুক্তারপুর এলাকার রফিক ভ’ইয়ার পুত্র। সে একজন কসমেটিক দোকানি ছিলেন। মৃত সিরাজুল শহরের ইদ্রাকপুর এলাকার বাসিন্দা।

অপরদিকে টঙ্গিবাড়ী উপজেলার পাইকপাড়া গ্রাম থেকে করোনা পজেটিভ নিয়ে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশনে ভর্তি হন মাসুদ (৫৫)।

সেও আজ সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরন করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিলিভ সার্জন ডা: আবুল কালাম আজাদ।

তিনি আরো জানান, ৩ জন রোগী আজ সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। এদের মধ্যে ১ জন রোগী করোনা পজেটিভ নিয়ে ভর্তি হন। এবং বাকী ২ জন করোনার উপসর্গ নিয়ে আইনেসালেশনে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তাদের দুই জনের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

রেজাল্ট এখনও আসেনি। আজ তারা মারা গেছে। মৃত ব্যক্তিদের ডাবিøইএইচওর নির্দেশনা অনুয়ায়ী দাফন করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares