এম. এ. আর. শায়েল
সিনিয়র সাব এডিটর

আদালত। প্রতীকী ছবি

মুন্সীগঞ্জের লৌহজং ও সদর উপজেলায় মা ইলিশ শিকার ও বহনের অভিযোগে ১৫ জেলের কারাদণ্ডাদেশ ও জরিমানা করা হয়েছে।

এ সময় ওই দুই উপজেলায় এক লাখ মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল, ৩২৫ কেজি মা ইলিশ ও ১৫ টি মাছ ধরার ট্রলার জব্দ করা হয়েছে।

শনিবার দিনগত রাত থেকে রোববার দুপুর পর্যন্ত মৎস অধিদপ্তর, কোষ্টগার্ড ও পুলিশ অভিযান চালিয়ে জেলেদের আটক এবং জাল ও ইলিশ জব্দ করে। পরে জব্দকৃত কারেন্ট জাল ও মাছ ধরার ট্রলার বিনষ্ট করা হয়। জব্দকৃত ইলিশ বিভিন্ন মাদরাসা ও এতিমখানায় বিতরণ করা হয়েছে।

সদর উপজেলা মৎস কর্মকর্তা আবুল কালাম জানান, সদর উপজেলার কালীরচর গ্রাম সংলগ্ন মেঘনা নদী ও বিভিন্ন বাজারে অভিযান চালিয়ে ইলিশ শিকার ও বহন করার অপরাধে ৫ জেলেকে আটক করেন। তাদের কাছ থেকে ৭৫ কেজি মা ইলিশ, ৩ টি মাছ ধরার ট্রলার ও ৫০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করেন।

পরে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হ্যাপি দাস আটক জেলেদের ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এদিকে, লৌহজং উপজেলার পদ্মা নদী ও বিভিন্ন বাসায় অভিযান চালিয়ে ১০ জেলেকে ইলিশ মাছ সহ আটক করে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রে ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. কাবিরুল ইসলাম খান এক বছর করে কারাদণ্ডাদেশ ও ৮৮ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এছাড়া অভিযানকালে ৯ টি ট্রলার আটক ও ২৫০ কেজি মা ইলিশ জব্দ করা হয়। ওই ট্রলার গুলো ছিদ্র পানিতে ডুবিয়ে দেওয়া হয়।

-মঈন উদ্দিন সুমন/মুন্সীগঞ্জ