মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়াম। ছবি : সংগৃহীত

ফর্মেট ছোট। চার, ছক্কার ফুলঝড়িতে দর্শক মাতোয়ারা। এই তো মজা টি-টোয়েন্টির। বাংলাদেশের সবচেয়ে ব্যয়বহুল ক্রিকেট প্রতিযোগিতা এই বিপিএল। বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায় শুরু হবে ম্যাচটি। মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামের এই ফাইনাল ম্যাচটির দিকেই তাকিয়ে আছে কোটি দর্শক-সমর্থকরা।

শিরোপা যুদ্ধে নামবে ঢাকা ডায়নামাইটস আর কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস। ঢাকার হয়ে এই যুদ্ধের নেতৃত্ব দেবেন দেশসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। আর কুমিল্লার হয়ে ইমরুল কায়েস। দুই দলের লড়াইয়ে শিরোপা কাদের হাতে যায়, সেটা দেখতেই অপেক্ষায় আছে সমর্থকরা।

কুমিল্লা নাকি ঢাকা? ট্রফির ভাগ্য নির্ধারণ হবে কয়েক ঘন্টা পর।
ছবি : সংগৃহীত

ইতোমধ্যে মিরপুরের রাস্তায় টিকেটের জন্য ভিড় করেছেন দর্শকরা। কিছুটা বিপত্তি ঘটেছিল। রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ ছিল কিছুক্ষণের জন্য। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

স্টেডিয়াম সংলগ্ন এলাকায় ফাইনালিস্ট দুই দলের পসরা নিয়ে বসে গেছেন হকাররা। কী নেই তাদের কাছে। জার্সি, হাতের ব্যান্ড, মাথার ব্যান্ডেনা আর পতাকা তো আছেই। কিছু তরুণ তরুণী রং তুলি নিয়ে ঘুরছেন। টাকার বিনিময়ে তারা একে দিচ্ছেন সমর্থকদের গালে হাতে নানা প্রতীক। আছে শব্দ সৃষ্টিকারী বাশির বিকিকিনি। স্টেডিয়ামের চারপাশে এখন উৎসবমুখর। অপেক্ষা এখন সন্ধ্যা সাতটার।