মালয়েশিয়ায় প্রায় ৮০ হাজার লোক ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ১১৩ জন। শনিবার দেশটির উপ স্বাস্থ্যমন্ত্রী লি বুন চেই বলেন, যদি মশাবাহিত এই রোগকে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসা সম্ভব না হয়, তবে বছর শেষে আক্রান্তের সংখ্যা দেড় লাখ ছাড়িয়ে যাবে। খবর স্ট্রেট টাইমসের

শহরাঞ্চলেই ৭০ শতাংশেরও বেশি লোক আক্রান্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। চলতি বছর বিশেষভাবে অস্ট্রেলিয়া, বাংলাদেশ, কম্বোডিয়া, চীন, লাওস, মালয়েশিয়া, ফিলিপিন্স, সিঙ্গাপুর ও ভিয়েতনামে ডেঙ্গুর প্রকোপ বেশি লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

এর আগে ২০১৫ সালে মালয়েশিয়ায় সবচেয়ে বেশি ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছিল। তখন এক লাখ ২০ হাজার ৮৩৬ ব্যক্তি মশাবাহিত এই সংক্রমণে ভুগছিলেন। আর মৃত্যু হয়েছিল ৩৩৬ জনের।

লি বলেন, ডেঙ্গু মহামারী থেকে রেহাই পেতে তারা বিভিন্ন উপায়ে চেষ্টা করছেন। এক্ষেত্রে মশা প্রজননের কেন্দ্রগুলো ধ্বংস করছেন তারা।

তিনি বলেন, ফিলিপিন্সে ডেঙ্গ টিকা ব্যবহার করা হয়েছে। কিন্তু মৃত্যুর সংখ্যা বেশি হওয়ায়ও পরবর্তী সময়ে তা প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে। বিমান ভ্রমণ স্বাভাবিক হওয়ায় এই রোগের সংক্রমণ বেশি হচ্ছে।