মান্দার প্রসাদপুর-রাধা গোবিন্দ জিউ মন্দিরে ৪০ প্রহরব্যাপী হরিবাসর

দেশ মাতৃকার শুভ কল্যাণ ও বিশ্ব শান্তিকল্পে নওগাঁর মান্দায় প্রসাদপুর-শ্রী শ্রী রাধাগোবিন্দ জিউ মন্দির কমিটির অায়োজনে গৌরব ও ঐতিহ্যের ৫৭ তম বার্ষিক হরিবাসর অনুষ্ঠানে সনাতন ধর্মসভা এবং ৪০ প্রহরব্যাপী মহানাম যজ্ঞানুষ্ঠান, লীলা-রস কীর্তন ও ভোগ মহোৎসব পালিত হচ্ছে।

শনিবার নওগাঁর মান্দা উপজেলার প্রসাদপুরে শ্রী শ্রী রাধাগোবিন্দ জিউ মন্দির প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত মহানাম যজ্ঞানুষ্ঠানে উপস্থিত মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা আ’লীগের দপ্তর বিষয়ক সম্পাদক অনুপ কুমার মহন্ত জানান, গত শনিবার সন্ধ্যায় শ্রীমদ্ভগবদ্গীতা পাঠ অন্তে গঙ্গা আবাহন, মঙ্গলঘট স্থাপন ও শুভ অধিবাস কীর্তনের মধ্যদিয়ে শুরু হয় এ অনুষ্ঠান।

রবি, সোম ও মঙ্গলবার মহানাম যজ্ঞানুষ্ঠান, বুধ লীলারস কীর্তন অর্থাৎ যজ্ঞানুষ্ঠান পালিত হয়েছে এবং বৃহস্পতিবারেও একই প্রোগ্রাম।

আগামী শুক্রবার কুঞ্জভোগ, শ্রী শ্রী মহাপ্রভূর ভোগ অন্তে মহাপ্রসাদ বিতরণের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হবে বলে জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে নাম কীর্তন পরিবেশন করেন মনিরামপুর যশোরের (পথের পাগল সম্প্রদায়ের) দীনবন্ধু রায়, দিনাজপুরের (রাই রমন সম্প্রদায়ের) টংকনাথ অধিকারী, মাগুরার (অাদি শ্রী গুরু সম্প্রদায়ের) নির্মল বিশ্বাস,সিরাজগঞ্জের অাদি মুক্তি সম্প্রদায়ের অভিরাম চন্দ্র সরকার, নওগাঁর অাদি গোবিন্দ মন্দির সম্প্রদায়ের সন্তোষ কুমার সরকার এবং নবরুপ সম্প্রদায়ের প্রভাস চন্দ্র দাস।

অপরদিকে লীলা কীর্তণ পরিবেশন করেন ফরিদপুরের নববৃন্দাবন সম্প্রদায়ের শ্রী সুকদেব অধিকারী, ভারতের গিরিধারী গৌর গোপাল সম্প্রদায়ের শ্রী সুকুমার সরকার, মনিরামপুর-যশোরের অধিকারী লীলা কীর্তণ সম্প্রদায়ের শ্রী চৈতন্য দাস উত্তম, সাতক্ষীরার রাধা গোবিন্দ লীলাকীর্তণ সম্প্রদায়ের শ্রী ধর্মদাস সরকার প্রমূখ।

প্রসাদপুর শ্রী শ্রী রাধাগোবিন্দ জিউ মন্দিরের সভাপতি শ্রী প্রলয় চন্দ্র সরকার দূর্গার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মন্দির কমিটির সহ-সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক,সাংগঠনিক সম্পাদক,কোষাধক্ষ্য, সহ-কোষাধক্ষ্য এবং সকল সদস্যবৃন্দের পাশাপাশি বিভিন্ন এলাকা থেকে অাগত ভক্তবৃন্দরা ।

সেইসাথে স্থানীয়, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ এবং প্রশাসনিক কর্মকর্তাবৃন্দ। এছাড়াও শ্রী শ্রী রাধা গোবিন্দ জিউ মন্দির ও হরিবাসর উদযাপন কমিটির সভাপতি শ্রী হৃদয় রঞ্জন সাহা এবং সাধারণ সম্পাদক শ্রী মোহিনী মোহন প্রামানিকসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, সনাতন ধর্মসভার প্রধান অালোচক ছিলেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ঢাকার অব: উপ-পরিচালক ডা:চিত্তরঞ্জন প্রামানিক। অাগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি শুক্রবারে গোবিন্দ মন্দিরের কীর্তণীয়া দলের পরিচালনায় কুঞ্জভঙ্গ, শ্রী শ্রী মহাপ্রভূর ভোগ অন্তে মহাপ্রসাদ বিতরণ করা হবে বলে জানা গেছে।

-মাহবুবুজ্জামান সেতু