দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি।

মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার চর বেউথা গ্রামের ৪বছরের শিশু সাইফুল হত্যা মামলায় সোহেল নামের এক যুবককে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আলাতের বিচারক শাহানা হক সিদ্দীকা। একই সাথে তাকে ১০হাজার টাকা অর্থদন্ড, অনাদায়ে আরও দুই মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেন বিচারক।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৩সালের ২৪শে জুন সকালে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার চর বেউথা গ্রামের কাশেম মিয়ার ছেলে সোহেল মিয়া প্রতিবেশি মো: বিল্লালের  ৪বছরের শিশুপুত্র সাইফুল ইসলামকে বিস্কুট কিনে দেয়ার লোভ দেখিয়ে বাড়ি থেকে তার বাবার ২২ হাজার টাকা মূল্যের স্মার্ট মোবাইল নিয়ে আসতে বলে।

সোহেল মিয়ার কথা অনুযায়ী ওই শিশু তার বাবার স্মার্ট ফোনটি নিয়ে আসলে সে ওই শিশুটিকে চর বেউথা গ্রামের ইউনুসের ধইনচা ক্ষেতে নিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। সোহেল শিশুটির লাশ ওই ধইনচা ক্ষেতে পুতে রাখে।

সাঈফুল নিখোঁজ হওয়ার পর গ্রামবাসী জানায় নিখোঁজ হওয়ার আগে সাইফুলকে সোহেলের সাথে যেতে দেখা যায়। সেই সূত্রে গ্রামবাসী ওই দিন বিকেলে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

ওই রাতে শিশুটির পিতা বাদী হয়ে মানিকগ্ঞ্জ সদর থানায় সোহেল মিয়াকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। পরের দিন সোহেলের স্বীকার উক্তি অনুসারে ওই ধইনচা ক্ষেত থেকে শিশু সাইফুলের লাশ উদ্ধার করে।

পুলিশ সোহেল মিয়াকে অভিযুক্ত করে ২০১৩ সালের ৩ সেপ্টেম্বর আদালতে চাজর্শীট প্রদান করে। আদালত ১০জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহনের পর ২৪ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে আসামীর উপস্থিততে এ রায় প্রদান করেন আদালত।

রাশেদুল ইসলাম খান, মানিকগঞ্জ