মানিকগঞ্জে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে অভিযোগের একদিন পরই নতুন মোবাইল ফোন পেলেন এক কলেজ ছাত্রী। মঙ্গলবার মানিকগঞ্জের জেলা প্রশাসক এসএম ফেরদৌস ওই ছাত্রীর হাতে নতুন একটি মোবাইল সেট তুলে দেন।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক আসাদুজ্জামান রুমেল জানান, পূজা নামের এক শিক্ষার্থী গত ১৯ আগষ্ট তার দপ্তরে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

তার অভিযোগ, ছয় মাস আগে মানিকগঞ্জ শহরের শহীদ রফিক সড়কে প্রাপ্তি টেলিকম থেকে তিনি শাওমি Note5 Ai ফোন কেনেন। ফোনটি ব্যবহারের কয়েক দিনের মাথায় নষ্ট হয়ে যায়। তিনি শাওমির সার্ভিসিং সেন্টারে মেরামত করতে গিয়ে জানতে পারেন তার ফোনটি আন অথরাইজড। তিনি প্রাপ্তি টেলিকম সেন্টারে গিয়ে যোগাযোগ করলে তারা বিষয়টি তারা গুরুত্ব দেয়নি।

পরে তিনি জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরে লিখিত অভিযোগ করেন।

ওই দিনই জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আসাদুজ্জামান রুমেল প্রাপ্তি টেলিকম সেন্টারে অভিযান পরিচালনা করেন এবং অভিযোগের সত্যতার ভিত্তিতে উক্ত প্রতিষ্ঠান মালিককে মোবাইল ফোন রিপ্লেসের আদেশ দেন এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের প্রতারণা না করতে কঠোরভাবে নির্দেশ দেন তিনি।

ওই দোকানে Note 5 Ai মডেলের ফোন না থাকায় এক হাজার টাকা বেশি দামের নতুন শাওমি Note 7 মডেলের ফোন দিতে বাধ্য হয় ওই দোকানদার

-শাহজাহান বিশ্বাস