ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি লিমন মজুমদার।

মাদারীপুর জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি লিমন মজুমদারের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। ২৫ মার্চ সোমবার সকালে শহরের আমিরাবাদ এলাকার নির্মাণাধীন দোতলা ভবনের অংশ থেকে তাকে অর্ধঝুলন্ত অবস্থায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় দেখতে পায় ওই বাড়ির লোকজন।

নিহতের পরিবার ও পুলিশ সূত্র জানায়, শহরের লঞ্চঘাট এলাকার বাসিন্দা বাবুল মজুমদারের ছেলে লিমন মজুমদার জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি। রাতে মোবাইলে কল পেয়ে বাসা থেকে বের হয়ে রাতে ঘরে ফেরেনি। সকালে আমিরাবাদ এলাকার লিয়াকত আলী নামের এক ব্যক্তির বাড়ির দোতলা ভবনের অংশে গলায় ওড়না দিয়ে ফাঁস লাগানো অর্ধঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায় ওই বাড়ির বাসিন্দারা।

এভাবেই মাটির সাথে পা লাগানো অবস্থায় উদ্ধার করা হয় ছাত্রলণীগের সহ-সভাপতির মরদেহ।

নিহত লিমনের পরিবারের অভিযোগ, হাঁটু গেড়ে বসে থাকার ভঙ্গিতে লিমনের লাশ ঝুলন্ত ছিল। এভাবে কোনো মানুষের পক্ষে আত্মহত্যা করা সম্ভব নয়। তাকে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।

মাদারীপুর সদর থানার ওসি কামরুল হাসান জানান, খবর পেয়ে মাদারীপুর থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। প্রাথমিকভাবে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর বিস্তারিত জানা যাবে।

জহির/দক্ষিণ-মধ্যাঞ্চলীয় ব্যুরো, মাদারীপুর:/জেবি