সিলেটে র‌্যালী

‘সুস্বাস্থ্যেই সুবিচার-মাদক মুক্তির অঙ্গীকার’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচার বিরোধী ২৬জুন আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষ্যে জেলা প্রশাসন ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তের উদ্যোগে সিলেট নগরীতে বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়েছে।  বুধবার র‌্যালিটি নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা পরিষদ মিলনায়তনে গিয়ে আলোচনা সভায় মিলিত হয়।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ মেজবাহ্ উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, মাদকের হাত থেকে সন্তানদের রক্ষা করতে হলে পরিবারকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে। তেমনি রাষ্ট্রের ও দায়িত্ব রয়েছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ রাখা। শিক্ষার্থীদেরকে আর্দশভাবে গড়ে তোলা, একজন সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে শিক্ষকদের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সব শ্রেণী পেশার মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে মাদক নিয়ন্ত্রণ করতে হলে।

মাদক ব্যবসা একটি অপরাধ ও মাদক ব্যবসা করে যাতে কেউ ভোগ করতে না পারে সেই দিকে রাষ্ট্র ভূমিকা পালন করবে। তখনই মাদক ব্যবসা কমে আসবে। মাদকরে প্রতি আসক্তি না হয়ে জ্ঞান, শিক্ষা- উন্নয়নের প্রতি শিক্ষার্থীদের মনোযোগ বাড়াতে হবে।

সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে ও জেলা কালচারাল অফিসার অসিত বরণ দাশ গুপ্তের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট মেট্রোপলিটনের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার পরিতোষ ঘোষ, সিলেট রেঞ্জের পুলিশ সুপার মো: নুরুল ইসলাম, সিলেট বিভাগীয় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক পরিতোষ কুমার কন্ডু, সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: মাহবুবুল আলম। স্বাগত বক্তব্য রাখেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মলয় ভূষন চক্রবর্তী।

মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিশিষ্ট সাংবাদিক ও কলামিষ্ট আফতাব চৌধুরী। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মহুয়া মমতাজ, বিশিষ্ট সমাজসেবী জামিল চৌধুরী, নারকস’র পক্ষে বক্তব্য রাখেন অর্থ সম্পাদক আলম হোসেন চৌধুরী।

কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন আব্দুল আহাদ, গিতা পাঠ করেন সুধাময় চক্রবর্তী।

দিবস উপলক্ষে চিত্রাঙ্গন প্রতিযোগীতা বিজয়ী শিশুদের হাতে মধ্যে পুরস্কার তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি।

র‌্যালিতে সহযোগিতা করে নারকস’র সাতটি সংগঠন- প্রত্যাশা, এইম ইন লাইফ, নিউ প্রশান্তি, বাধঁন, আহবান, প্রেরণা ও প্রতিশ্রুতি ।