বিশেষ যন্ত্র দিয়ে ইঁদুর হান্নান ইদুর নিধন করছেন। ছবি : সংগৃহীত

ইঁদুর নিধনের জন্য দিনে দিনে বিখ্যাত হয়ে উঠছেন মাগুরা জেলার আবদুল হান্নান নামের এক যুবক। তিনি বছরের পর বছর বিনামূল্যে ইঁদুর নিধন করে আসছেন। আর এ জন্য এলাকাবাসী তাকে ইঁদুর হান্নান উপাধি দিয়েছেন। এখন গ্রামের কেউ আর হান্নান বললে তাকে চেনে না।

তাকে খুঁজে বের করতে হলে বলতে হবে ইঁদুর হান্নান। তাহলেই মানুষ তাকে চিনবেন।

স্থানীয় কৃষি অফিস বলছে, গেলো ১২ বছরে হান্নান ইতোমধ্যে ২০ লাখ ইঁদুর মেরে রেকর্ড গড়েছেন। ইঁদুর নিধনের স্বীকৃতিস্বরূপ পেয়েছেন একাধিকবার জাতীয় পুরস্কার।

মাগুরার সদর উপজেলার বড়খড়ি গ্রামে বাস করেন আবদুল হান্নান। ইঁদুর মারার পেছনের ঘটনা বর্ণনা করতে গিয়ে হান্নান বলেন, ‘২০০৭ সালের দিকে বাড়িতে রাখা কিছু ধানের সবগুলোই নষ্ট করে ফেলে ইঁদুর। সে সময় মূলত ইঁদুর মারার বিষয়টি নিয়ে ভাবি। এরপর নিধনের জন্য কাঠের এই যন্ত্রটি বানাই।’

জানা গেছে, তার নিজের আবিষ্কৃত এই যন্ত্র দিয়েই হান্নান নিজের বাড়ি ইঁদুর মুক্ত করেন। এরপর বিষয়টি নিয়ে মাঠে নেমে পড়েন। পাশাপাশি বিনামূল্যে ইঁদুর নিধনের নানা যন্ত্র সরবরাহ করা শুরু করেন। এভাবে হান্নান ১২ বছরে ২০ লাখ ইঁদুর নিধন করেছেন। হান্নান সর্বপ্রথম ২০১১ সালেই দু’লাখ ৩০ হাজার ইঁদুর নিধন করে জাতীয় ইঁদুর নিধন সপ্তাহে জাতীয় পুরস্কার পান। সেবার তিনি ইঁদুর নিধনে প্রথম স্থান অর্জন করেন।

মাগুরার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক জাহিদুল আমিন বলেন, ‘হান্নান মাগুরার পাশাপাশি ঢাকাসহ সারাদেশেই ইঁদুর নিধন করছেন। তার এমন উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসনীয়। এভাবে তরুণরা এগিয়ে আসলে কৃষির উন্নয়ন হবে।’