রমজানে বাজার মনিটরিং করবে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। ছবি : সংগৃহীত

আসছে রমজান। মাসটি সংযমের। কিন্তু এ যেন শুধু কিতাবের কথা। বাস্তবতা দেখায় ভিন্ন কিছু। অসংযত সব কিছুর বাড়াবাড়ি প্রদর্শন চলে এই মাসে। ব্যবসায়ীদের জন্য এই মাসটি যেন লাগামবিহীন এক উৎসব। নিত্য ব্যবহার্য সব পণ্যের দাম বাড়ে এ সময়। বাদ থাকে না ইফতারির খাদ্য পণ্যগুলো। অথচ অন্য মুসলিম দেশে ঘটে ভিন্ন ঘটনা। রমজান উপলক্ষে সেখানে চলে বিশেষ মূল্যহ্রাস। গরিব পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠিকে দেওয়া হয় বিশেষ অগ্রাধিকার। এমন বেশ কিছু মুসলিম দেশ আছে যেখানে গরিবদের জন্য রমজান মাসে ইফতারি ও সেহরি ফ্রি। অথচ বাংলাদেশে ঘটে ভিন্ন ঘটনা।

খাদ্য সংযমের বদলে এখানে চলে প্রাচুর্য প্রদর্শনের এক হুজ্জত। চলে লাগাতার ইফতার পার্টি। এর সঙ্গে সাম্প্রতিক সময়ে যুক্ত হয়েছে সেহরি পার্টি। সবখানে চলে লাগামহীন এক উদযাপন পর্ব। যা ইসলাম ধর্মের মূল আহবানটির বিপক্ষে যায়। ব্যবসায়ীরা এ সময় ইচ্ছে মতো পণ্যের দাম বাড়ান। নাভিশ্বাস ওঠে ক্রেতা সাধারণের। একই সঙ্গে রমজানে বসে ভেজাল খাদ্যের পসরা। ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালায়।

বড় বড় খাদ্য বিক্রেতা ব্র্যান্ডও বাদ যায় না। পত্রিকায় খবরে প্রকাশ হয় এসব। সাধারণ মানুষ আস্থা পাবে এমন কিছু ঘটে না রমজানে। সংযমে বদলে তুমুল এক হুড়োহুড়ির মৌসুম যেন পবিত্র এই মাস। এবার রমজানে নিত্যপণ্যের দাম বাড়বে না বলে আশ্বাস দিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। ১৮ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয়ে চাল ব্যবসায়ীদের সংগঠনের একটি প্রতিনিধিদলের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে বাজার মনিটরিং করা হচ্ছে জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকেও বাজার মনিটরিং চলছে। কাজেই আশা করছি, রমজানে বাজার স্থিতিশীল থাকবে। নিত্যপণ্যের দাম বাড়বে না।’ বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সবকিছুর পর্যাপ্ত মজুত আছে। রাস্তায় যেন পণ্য পরিবহনের ট্রাকে চাঁদাবাজি না হয়, সে ব্যাপারে আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি।’ তবে কথা হচ্ছে মন্ত্রীর আশ্বাস কতোটা মানবেন ব্যবসায়ীরা? সরকারও যেন জিম্মি তাদের হাতে। তাই কামনা সত্যিকারের এক পবিত্র মাস হয়ে উঠুক রমজান।

ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষের ভেতর ফিরে আসুক সংযম বোধ। রহমত, মাগফিরাত আর নাজাত সত্যিকার অর্থেই যেন বিরাজ করে সবার মনে। এমন বিশুদ্ধ রমজানের প্রত্যাশা যেন স্বপ্ন হয়ে না বাস্তবে বিরাজ করে।

আজকের পত্রিকা/এমএইচএস/আ.স্ব