চরফ্যাশনের জেলে

৯ অক্টোবর থেকে ৩০ অক্টোবর সারা দেশে ইলিশ শিকার, আহরণ, পরিবহন, মজুত, বাজারজাতকরণ, ক্রয়, বিক্রয় ও বিনিময় নিষিদ্ধ করেছে সরকার। এ সময়টা ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুম।

চরফ্যাশন উপজেলা মৎস্য অফিসের কর্তৃক মৎস্য ঘাট গুলোতে সচেতন মূলক সভার আয়োজন করা হয়েছে।
এরই মধ্যে মা ইলিশ রক্ষা কার্যক্রম বাস্তবায়নের লক্ষ্যে চরফ্যাশনে বিভিন্ন কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে।

জেলেদেরকে সচেতনতার জন্য গুরুত্বপূর্ণ সড়ক, নদী, সাগরের মোহনায় ও হাটবাজারে মাইকিং, ব্যানার, পোস্টারিং, প্রচারপত্র বিতরণ, জেলেদের সঙ্গে মতবিনিময় ও উঠান বৈঠকের ব্যবস্থা করা হবে।

উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মারুফ হোসেন মিনার বলেন, প্রতিবছর আশ্বিন মাসের প্রথম উদিত চাঁদের পূর্ণিমার আগের চারদিন, পরের ১৭ দিন এবং পূর্ণিমার দিনসহ মোট ২২ দিনের এ নিষেধাজ্ঞা ২০১৭ সাল থেকে জারি করেছে মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রণালয়। তবে ২০১১ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত ১১ দিন এবং ২০১৫ সালে এ নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ ছিলো ১৫ দিন।

চরফ্যাশন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রহুল আমীন বলেন, নিষেধাজ্ঞা ভঙ্গ করলে ১ থেকে ২ বছরের সশ্রম কারাদ বা সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা জরিমানা অথবা উভয় দন্ড দেয়ার বিধান রয়েছে।

আমির হোসেন/চরফ্যাশন