মঠবাড়িয়া হাসপাতালের জরুরি বিভাগ।

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় নির্বাচনী সহিংসতায় আহত জনি তালুকদারের (২৫) মৃত্যু ঘটেছে। ২৬ মার্চ সোমবার দুপুর ১ টার দিকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে নেয়ার পথে ভান্ডারিয়া নামক স্থানে তার মৃত্যু হয়।

জনি তালুকদার উপজেলার গুলিসাখালী ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ-সভাপতি ও উত্তর হলতা গ্রামের মৃত হাতেম আলী তালুদারের পুত্র। সে স্বতন্ত্র প্রার্থী রিয়াজ উদ্দিনের (আনারস প্রতীক) কর্মী ছিলো বলে দাবি করেছেন স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী রিয়াজ উদ্দিন।

জানা গেছে, জনি তালুকদার ২৫ মার্চ সোমবার সকাল পৌনে ৯টার দিকে স্থানীয় কবুতরখালী বাজারের সামনে দাঁড়ানো ছিলে। এ সময় নৌকা মার্কার কর্মীরা তাকে ধাওয়া করে মাঠের মধ্যে ফেলে এলোপাথারী কুপিয়ে জখম করে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে সাথে সাথে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে স্থানান্তরিত করে। দুপুর ১ টার দিকে ভান্ডারিয়ার কাছাকাছি পৌঁছলে তার মৃত্যু হয়।

মঠবাড়িয়া থানার ওসি এমআর শওকত আনোয়ার ঘটনার সত্যাতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

শেখ রিয়াজ আহাম্মেদ নাহিদ, পিরোজপুর/জেবি