কাজী ফয়সাল
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

মামলা প্রক্রিয়ায় পুলিশ কর্মকর্তা এডিসি নাজমুল ইসলামের সঙ্গে জেসিয়া ইসলাম। ছবি: ফেসবুক।

ইন্টারনেটের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ অন্যান্য মাধ্যমে ভুয়া কন্টেন্ট ছড়ানোর অভিযোগ এনে মামলা করেছেন সাবেক মিস বাংলাদেশ জেসিয়া ইসলাম। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সাইবার সিকিরিউটি অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগে এই অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। জেসিয়া ইউটিবার সালমান মুক্তাদির সংশ্লিষ্টে বেশ আলোচিত মুখ।

পরিচিত মুখ ইউটিউবার সালমান মুক্তাদিরের সঙ্গে জেসিয়া।
ছবি: জেসিয়ার ফেসবুক পাবলিক পোস্ট থেকে নেওয়া।

১২ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার দুপুরে ডিএমপির সাইবার সিকিরিউটি এবং ক্রাইম বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) নাজমুল ইসলামের কাছে তিনি এ অভিযোগ দায়ের করেন।

এ প্রসঙ্গে জেসিয়া ইসলাম নিজের ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাসও দেন। স্ট্যাটাসটিতে তিনি উল্লেখ করেন, ‘আজ দুপুরে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সাইবার ইউনিটে একটি অভিযোগ দায়ের করলাম। গত কয়েকদিন ধরে আমাকে নিয়ে কিছু ফেইক ভিডিও বানিয়ে আমাকে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য একটি কুচক্রি মহল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও ইন্টারনেটে ভুয়া কন্টেন্ট ছড়াচ্ছে।’

তিনি আরো উল্লেখ করেন, ‘মুলত এদেরকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার জন্য এডিসি নাজমুল ভাইয়ের কাছে এই অভিযোগ দায়ের করলাম। আমি আশাবাদী শত আস্থার এই প্রতিষ্ঠান এই খারাপ লোকগুলোকে খুঁজে বের করে শাস্তির আওতায় নিয়ে আসবে এবং ওই সব ভুয়া কন্টেন্ট ইন্টারনেট থেকে মুছে দিবে।’

এ বিষয়ে ডিএমপির সাইবার সিকিরিউটি এবং ক্রাইম বিভাগের এডিসি নাজমুল ইসলাম বলেন, পুলিশ সঠিক অনুসন্ধান করবে। আশা করি সত্যকে সামনে উপস্থাপনা করা হবে। প্রযুক্তির সাহায্যে প্রকৃত অপরাধীকে চিহ্নিত করে অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে।

আজকের পত্রিকা/কেএফ