ভুটানকে হারিয়ে বাংলাদেশের দশম স্বর্ণ জয়

আর্চারিতে এসেছে দুটি সোনার পদক। এবার রিকার্ভ মিশ্র ইভেন্টে সোনা তুলে নিলেন বাংলাদেশের রোমান সানা ও ইতি খাতুন জুটি। এটি এসএ গেমসে বাংলাদেশের দশম স্বর্ণপদক।

৮ ডিসেম্বর রবিবার ফাইনালে রোমান-ইতি জুটি ভুটানি দলকে হারিয়েছে ৬-২ সেটে।

নেপালে অনুষ্ঠিত ১৩তম এসএ গেমসে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে বাংলাদেশ পুরুষ দল আর্চারির রিকার্ভে দলগত স্বর্ণপদক জয় করেছে। আর এরপরেই নারী দল জয় করে স্বর্ণপদক।

এসএ গেমসের ৭ম দিন (৭ ডিসেম্বর) শনিবার বেশ ভালোই কেটেছিল বাংলাদেশের। যাবেই বা না কেনো? এদিন তো দেশের ঝুলিতে এসেছে আরও তিনটি স্বর্ণ পদক। এতে করে চলতি আসরে অর্জন দাঁড়াল ৭টি স্বর্ণ।

দিনের শুরুতেই ভারোত্তোলনে বাংলাদেশকে দিনের প্রথম স্বর্ণ এনে দেন মাবিয়া আক্তার। তার হাত ধরে আসে আসরের ৫ম স্বর্ণ। পোখারায় মেয়েদের ভারোত্তোলনে ৭৬ কেজি ওজন শ্রেণিতে সোনা জিতেন মাবিয়া। তিনি মোট ১৮৫ কেজি (৮০ কেজি+১০৫ কেজি) ভারোত্তোলন করেছেন।

পরে স্ন্যাচে ৮০ কেজি এবং ক্লিন অ্যান্ড জার্কে ১০৫ কেজিসহ মোট ১৮৫ কেজি ওজন তুলে সেরা হন জিয়ারুল। এসএ গেমসের গত আসরে ৬৩ কেজি ওজন শ্রেণিতেও সোনা জিতেছিলেন এই ভারোত্তোলক। তার হাত ধরে আসে দিনের ২য় এবং বাংলাদেশের ৬ষ্ঠ স্বর্ণপদক।

এরপরের স্বর্ণটি আসে ফেন্সিং থেকে। এসএ গেমসে প্রথমবারের মতো যুক্ত হওয়া ফেন্সিংয়ের সেভার ইভেন্ট থেকে ফাতেমা মুজিব এনে দেন দিনের তৃতীয় স্বর্ণ। তাতেই দিন শেষে পদকের ঝুলিতে অর্জন দাঁড়ায় ৭টি সোনা।

এর আগে গেমসের দ্বিতীয় দিনে বাংলাদেশকে এবারের আসরের প্রথম স্বর্ণ এনে দিয়েছিলেন তায়কোয়ান্দো থেকে দিপু চাকমা। তারপর দিন কারাতে থেকে আসে আরও তিনটি স্বর্ণপদক। কারাতে থেকে স্বর্ণ এনে দিয়েছিলেন আল আমিন, অন্তরা এবং মারজান।