ঢাকা রেস্টুরেন্টে সব ধরনের বাংলাদেশি খাবার পাওয়া যায়। ছবি: সংগৃহীত

অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনা পর্যটন নগরী হিসেবে পরিচিত। নয়নাভিরাম প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ও ঐতিহাসিক স্থাপনা দেখতে প্রতি বছর প্রচুর সংখ্যক পর্যটক ভিয়েনায় এসে থাকেন। অস্ট্রিয়ার ভিয়েনায় বেশ কিছু এশিয়ান ও বাংলাদেশি খাবারের রেস্টুরেন্ট রয়েছে। এর মধ্যে ‘ঢাকা রেস্টুরেন্ট’ অন্যতম।

ভিয়েনার প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত ঢাকা রেস্টুরেন্টের মালিক মিজানুর রহমান শ্যামল বাংলাদেশের বিক্রমপুরের বাসিন্দা। তিনি দেড় যুগ ধরে ভিয়েনায় স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন। ২০১৭ সালে প্রতিষ্ঠা করেন ঢাকা রেস্টুরেন্ট। ভিয়েনায় যে কয়েকজন বাংলাদেশি ব্যবসায়ী সাফল্যের সঙ্গে ব্যবসা করে যাচ্ছেন, তাদের মধ্যে শ্যামল অন্যতম।

ঢাকা রেস্টুরেন্টের মালিক মিজানুর রহমান শ্যামল বাংলাদেশের বিক্রমপুরের বাসিন্দা। ছবি : সংগৃহীত

শ্যামল নিজেই কুক হিসেবে এ রেস্টুরেন্টে কাজ করে থাকেন। রান্নার বিষয়ে ভিয়েনার স্থানীয় প্রতিষ্ঠান থেকে সার্টিফিকেট অর্জন করেছেন শ্যামল। তিনি একাই এই রেস্টুরেন্ট পরিচালনা করেন। ঢাকা রেস্টুরেন্টে প্রচুর বাংলাদেশি, ভারতীয় ও বিদেশি নাগরিক নিয়মিত যাওয়া-আসা করে থাকেন।

মিজানুর রহমান শ্যামল জানিয়েছেন, ‘ভিয়েনায় ব্যবসা করতে তেমন একটা সমস্যা হয় না। এখানে ব্যাবসায়ীদের জন্য সুন্দর পরিবেশ রয়েছে। কেননা এ দেশে ব্যবসা করতে বাড়তি কোনো ঝামেলা পোহাতে হয় না। এমনকি করের পরিমাণও খুব একটা বেশি না। তবে রেস্টুরেন্ট ব্যবসার জন্য সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ হলো- স্থান নির্বাচন করা। কারণ, সঠিক স্থানে ব্যবসা না করলে অনেক সময় ক্ষতির সন্মুখীন হতে হয়।’

ঢাকা রেস্টুরেন্টে সব ধরনের বাংলাদেশি খাবার পাওয়া যায়। এছাড়া ভারতীয় ও অস্ট্রিয়ার কিছু স্থানীয় খাবারও রয়েছে।

আজকের পত্রিকা/বিএফকে/এমএইচএস/সিফাত