ভালোবাসা দিবসকে ঘিরে অনেকেরই নানা পরিকল্পনা থাকে। ছবি: সংগৃহীত

ভালোবাসার কোনো বয়স নেই। মনের মধ্যে রোমান্টিসিজম থাকলেই ভালোবাসা চিরজীবনই স্থায়িত্ব পায়। এই ভালোবাসা দিবসকে ঘিরে অনেকেরই নানা পরিকল্পনা থাকে। এর মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো পোশাক-সাজসজ্জাসহ শারীরিক প্রস্তুতি নেওয়া নিয়ে। ফ্যাশন বা সাজসজ্জা পুরোপুরিই নিজের কাছে। যা পরে আপনি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করবেন তাই পরুন। তবে একেবারে খাম খেয়ালি করলে চলবে না।

ছেলেদের ক্ষেত্রে

সেভ করতে ভুলবেন না। ছবি: সংগৃহীত

সাজসজ্জার প্রথম শর্তই হচ্ছে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা। সবচেয়ে ভালো হয় বাইরে বের হওয়ার আগে গোসল করে নিলে। তারপর নিজেকে সতেজ রাখতে ব্যবহার করতে পারেন লোশন, ডিওডেরেন্ট, বডি স্প্রে, কিংবা পারফিউম। সেভ করতে ভুলবেন না। তারপর পছন্দের পোশাকটি পরে ফেলুন। তার সাথে মানানসই জুতা, বেল্ট এবং ঘড়ি পরে নিন।

মেয়েদের ক্ষেত্রে

হালকা মেকাপ করে নিন, বেশি ভারি মেকাপ না করাই ভালো। ছবি: সংগৃহীত

ভ্যালেন্টাইনস ডের দু-এক দিন আগে থেকেই প্রস্তুতি নিতে শুরু করুন। আইব্রো প্লাক করে নিন। ফেসিয়াল করে নিতে পারেন ২/১ দিন আগে। ওয়াক্সিং, ব্লিচিং বা ফেয়ার পলিশ করে নিতে পারেন আগের দিন। প্রয়োজন মনে হলে প্যাডিকিওর, মেনিকিওরটাও করিয়ে নিতে পারেন। সব সময় মনে রাখবেন পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতাই সৌন্দর্যের মূল উৎস। বের হবার আগে নিজের পছন্দের পোশাকটি পরে নিন। হালকা মেকআপ করে নিন, বেশি ভারী মেকআপ না করাই ভালো। সঙ্গে পরতে পারেন ছোট আংটি, দুল এবং ব্রেসলেট।

নারী-পুরুষ যেই হোন না কেনো, রেডি হওয়ার জন্য অতিরিক্ত কিছুই করা উচিত হবে না। জাঁকালো কোনো অনুষ্ঠান না, ভালোবাসার মানুষটির সাথে কিছু সময় কাটাতে যাচ্ছেন, সেই কথাটা মাথায় রাখতে হবে।

আজকের পত্রিকা/সিফাত