ভারতে পাচার হওয়া ববিতা রানী (২৩) নামে এক বাংলাদেশি নারীকে ফেরত পাঠিয়েছেন ভারতীয় সীমান্ত রক্ষীবাহিনী (বিএসএফ) সদস্যরা ।

(২৪ আগস্ট) শনিবার দুপুর ২ টায় কাগজ পত্রের আনুষ্ঠানিকতা শেষে ভারতের পেট্রাপোল বিএসএফ বেনাপোল চেকপোস্ট বিজিবির হাতে তুলে দেয়।

পরে যশোরের একটি এনজিও সংস্থা তাকে পরিবারের কাছে পৌঁছে দিতে নিজেদের জিম্মায় নিয়েছেন।

ফেরত আসা বাংলাদেশি নারী নীলফামারী জেলার সদর থানার বাসিন্দা।

পাচারের শিকার ববিতা রানী জানান, ভালো কাজের কথা বলে তাকে সীমান্ত পথে ভারতে নিয়ে যায়। পরে দালালরা তাকে হাওড়া স্টেশনে ফেলে পালিয়ে আসে। ভারতীয় পুলিশ তাকে আটক করে জেলে পাঠায়। জেল থেকে ভারতের কলকাতার হাওড়ায় অবস্থিত লিলুয়া নামে একটি এনজিও সংস্থা তাকে ছাড়িয়ে নিজেদের আশ্রয়ে রাখে। প্রায় ৩ বছর পর আজ দেশে ফিরছেন।

এনজিও কর্মকর্তা জানান, দুই দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যোগাযোগের মাধ্যমে তাকে স্বদেশ প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ায় ফেরত আনা হয়েছে। যদি পাচারকারীকে শনাক্ত করে মামলা করতে চায় তাকে আইনি সহায়তা করা হবে।

বেনাপোল আইসিপি বিজিবি কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার বাকী বিল্লাল জানান, কাগজপত্রের আনুষ্ঠানিকতা শেষে তাকে পোর্টথানা পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে ৷

ইয়ানূর রহমান/বেনাপোল