ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সোমবার রাজ্যসভায় ৩৭০ ধারা বাতিলের প্রস্তাব পেশ করতেই ক্ষেভে ফেটে পড়েন পিডিপি নেতা ও এমপি মীর মহম্মদ ফৈয়াজ। ছবি:সংগৃহীত

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সোমবার রাজ্যসভায় ৩৭০ ধারা বাতিলের প্রস্তাব পেশ করতেই ক্ষেভে ফেটে পড়েন পিডিপি নেতা ও এমপি মীর মহম্মদ ফৈয়াজ। রাজ্যসভায় জম্মু কাশ্মিরের প্রতিনিধিত্ব করা এই নেতা রাগে ভারতীয় সংবিধানের প্রতিলিপি ছিঁড়ে ফেলেন।

সংসদে অমিত শাহের বক্তব্য রাখার পর থেকেই বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন জম্মু ও কাশ্মীরের অন্যতম রাজনৈতিক দল পিডিপির দুই সাংসদ নাজির আহমেদ এবং এমএম ফৈয়াজ।

বিক্ষোভের এক পর্যায়ে রাগে ভারতের সংবিধান ছিড়ে টুকরো টুকরো করেন এমএম ফৈয়াজ। যার ফলে কাশ্মীরের ওই দুই নেতাকে সংসদ থেকে বের করে দেন অমিত শাহের লোকজন। এক পর্যায়ে রাগে নিজের জামাও ছিঁড়ে ফেলেন ফৈয়াজ।

এই দুই কাশ্মীরি নেতার ক্ষোভের ভিডিওটি ইতিমধ্যে ইউটিউবে ছড়িয়ে পড়েছে। যদিও উগ্রবাদী হিন্দুরা এই ভিডিওতে বিরূপ মন্তব্য করেছেন। আর কে না জানে, মোদির নিতৃত্বে গোটা ভারতে চলছে হিন্দুরাজ প্রতিষ্ঠার চক্রান্ত যার সর্বশেষ দৃষ্টান্ত কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বিলোপ।

তাই ভারতের উগ্র জাতীয়তাবাদীরা এখন আর ধর্ম নিরপেক্ষতার ধার ধারে না, তারা বিজেপি আদর্শ তথা দক্ষিণ এশিয়ায় একটি হিন্দু রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করার স্বপ্নে বিভোর।
এদিকে এই ঘটনায় এমএম ফৈয়াজের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে চলেছে ভারত সরকার। তাকে গ্রেপ্তার, এমনকি তার নাগরিকত্ব বাতিল করা হতে পারে বলেও আশঙ্কা করা হচ্ছে।

আজকের পত্রিকা/এসএমএস