ধর্ষণ। প্রতীকী ছবি

ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা উপজেলার পশ্চিম হাসামদিয়া গ্রামে মঙ্গলবার বিকেলে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষন করা হয়েছে। ধর্ষক রাকিবুল মিয়ার (১৪) হাত থেকে শিশুটিকে রক্তার্ত অবস্থায় উদ্ধার করে ভাঙ্গা হাসপাতালে ভর্তি করা হলে অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরনের কারেন শিশুটিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

রাতেই ধর্ষক রাকিবুল মিয়াকে ভাঙ্গা থানা পুলিশ গ্রেফতার করে। ঘটনার পর রাতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রবিউল ইসলাম সহ পুলিশের উদ্ধর্তন কর্মকর্তাগন পরিদর্শন করেছেন। এঘটনায় শিশুটির মা কহিনুর বেগম বাদী হয়ে ভাঙ্গা থানায় একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করেছেন।

থানার উপ-পরিদর্শক পিযুষ কান্তি জানায়, পৌর সদরের পশ্চিম হাসামদিয়া গ্রামের সরকারি চাকুরিজীবী ওবায়দুল মিয়ার ছেলে রাকিবুল মিয়া মঙ্গলবার বিকালে খাবারের লোভ দেখিয়ে একই এলাকার সৌদি প্রবাসী ইব্রাহিম মাতুব্বরের শিশু কন্যাকে রান্না ঘরে নিয়ে ধর্ষন করে। শিশুটি চিৎকার দিলে আশপাশের লোকজন এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

রাকিবকে আটক করে ফরিদপুরের পুলিশ হেফাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। বুধবার ধর্ষক রাকিবুল মিয়াকে আদালেতে প্রেরন ও ধর্ষিতা শিশুটিকে সেফহোমে রাখা হয়েছে।

ইয়াকুব আলী তুহিন/ফরিদপুর