নিজের লকার ভেঙ্গে ক্ষমা চাইলেন পগবা। ছবি : গোল ডট কম

মরিনহো থাকাকালীন সময় কেমন যেন অচেনা রূপে চলে গিয়েছিলেন পগবা। কোচের সঙ্গে সম্পর্কের টানা-পোড়ান থেকে শুরু করে তাকে নিয়ে বিভিন্ন গুজব শোনা যাচ্ছিল। নতুন কোচ আসার পর আবার সেই আগের রূপ যেন ফিরে পাওয়া গেল পগবাকে। তবে দুর্দান্ত ছন্দে থাকা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তাদের নতুন কোচের অধীনে প্রথম ম্যাচ হারে চ্যাম্পিয়নস লিগের প্রথম লেগে পিএসজির বিপক্ষে।

শুধু তাই না চ্যাম্পিয়ন্স লিগে পিএসজি বিরুদ্ধে ম্যাচে দু’বার হলুদ কার্ড দেখায় মাঠ ছাড়তে হয়েছিল পল পগবাকে। সে দিন ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ড্রেসিংরুমে ফিরে ফরাসি তারকা সাংঘাতিক মাথা গরম করেন। শুধু তাই নয়, নিজের লকারও ভেঙে ফেলেন।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অনেকটা পিছিয়ে পড়লেও পোগবাও চান, এ বার কোনওভাবে প্রিমিয়ার লিগ প্রথম চারে শেষ করার। যদিও খেতাবের স্বপ্ন সম্ভবত আর দেখছে না রেড ডেভিলসরা তবে নিজের মাথা গরম করার জন্য ক্লাব, ম্যানেজার এবং সতীর্থদের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন তিনি। জানিয়েছেন, চ্যাম্পিয়ন্স লিগে পরের ম্যাচে খেলতে পারবেন না ভেবে ভেঙে পড়েছিলেন তিনি। তাই মাথা গরম করে ফেলেন। কোচ ওলে সোলসকারও জানিয়েছেন, লাল বা হলুদ কার্ড ফুটবলের অঙ্গ। কিন্তু মাঝে মধ্যে সেটা দুর্ভাগ্যজনকভাবে ঘটে। পলের ক্ষেত্রে সেটাই হয়েছে। দানি আলভেসকে এমন কিছু মারাত্মক ফাউল ও কিন্তু করেনি।

আজকের পত্রিকা/আ.স্বপ্ন/জেবি