বিশ্বকাপের ম্যাচ মাঠে বসে দেখা মানে অন্যরকম এক অনুভূতির ব্যাপার। ছবি :সংগৃহীত

৪ দিন পরেই শুরু হচ্ছে বিশ্বকাপ। তবে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু হবে ২ জুন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে। বিশ্বকাপের ম্যাচ মাঠে বসে দেখা মানে অন্যরকম এক অনুভূতির ব্যাপার। এবারের বিশ্বকাপ ইংল্যান্ডে হওয়ার কারণে খেলা দেখার পাশাপাশি সুযোগ থাকছে বিলেতটাও ঘুরে দেখার। এ সুবর্ণ সুযোগের সদ্ব্যাবহার করতে দেশ-বিদেশ থেকে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছে বিশ্বকাপের টিকিট চাচ্ছেন অসংখ্য টাইগার ভক্ত। এজন্য অনেকে বোর্ডের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে ধরনা দিচ্ছেন। তাই বাধ্য হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) কাছ থেকে টিকিট কিনছে বিসিবি।

নিজামউদ্দিন চৌধুরী জানান, ঢাকার ক্লাব ও অন্যান্য স্টেকহোল্ডারদের চাহিদা মেটাতে আইসিসি থেকে টিকিট কিনতে হচ্ছে। পরিচালকরাও বোর্ডের কাছ থেকে তা কিনতে আগ্রহ দেখিয়েছেন। বিশেষ করে ঈদ সামনে থাকায় চাহিদা বেড়ে গেছে। তাই টিকিট কিনতে কয়েক কোটি টাকা গুনতে হচ্ছে।

কত টাকার টিকিট কেনা হচ্ছে? জবাবে বিসিবি সিইও বলেন, টিকিট হাতে পাওয়ার পর টাকার অংক জানাতে পারবো। খুব বেশি খরচ হবে না। আমরা আইসিসির কাছে যে পরিমাণ টিকিট চেয়েছি তা নাও পাওয়া যেতে পারে। কারণ অন্য বোর্ডগুলোও টিকিট কিনবে। ৩ কোটি টাকার সমপরিমাণ টিকিট চেয়ে ‘রিকুজিশন’ দেয়ার সুযোগ রেখেছে আইসিসি।

আজকের পত্রিকা/এসএমএস/আ.স্ব