নাটোরের বড়াইগ্রামে দুটি যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই আব্দুস সামাদ (৭০) নামে এক বৃদ্ধ নিহত ও কমপক্ষে আরো ২০ জন আহত হয়েছেন।

বুধবার সকাল ১১ টার দিকে নাটোর-পাবনা মহাসড়কের বনপাড়া কালিকাপুর কৃষি ও কারিগরি কলেজের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত আব্দুস সামাদ নাটোর সদর উপজেলার আগদিঘা কাটাখালি গ্রামের মৃত আব্দুল আজিজের ছেলে।

বনপাড়া হাইওয়ে থানার ওসি খন্দকার শফিকুল ইসলাম জানান, বুধবার সকালে কালিকাপুর এলাকায় সৈয়দপুর থেকে বরিশালগামী তুহিন পরিবহণের (ঢাকা মেট্রো ব ১১-০৫০৯) সঙ্গে পাবনা থেকে রাজশাহীগামী সেজান পরিবহণের (পাবনা ব ১১-০১২০) মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। এতে একজন ঘটনাস্থলেই আব্দুস সামাদ নিহত ও আরো ২০ জন আহত হন।

পরে স্থানীয়দের সহায়তায় বনপাড়া হাইওয়ে পুলিশ ও বনপাড়া ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করে নাটোর সদর হাসপাতালসহ ও বনপাড়ার বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করেন।

-আসাদুল ইসলাম আসমত