ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের মাঝখানে বৈদ্যুতিক খুটি

ঢাকা-খুলনা মহসড়কের গোপালগঞ্জ শহরের বেদগ্রাম এলাকায় হাই ভোল্টেজ বিদ্যুৎ লাইনের অন্ততঃ ১৪টি খুটি রেখেই সড়ক বিভাগের রাস্তা প্রশস্তকরণ কাজ চলছে গত ৬ মাস ধরে। এর ফলে মারাত্মক দূর্ঘটনা ঝুঁকিতে রয়েছে এ সড়কে চলাচলকারী যানবাহন।

সড়ক বিভাগ বলছে,খুঁটি অপসারণের জন্য উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছেন তারা। আর এ বিষয়ে কথা বলতে রাজি হয়নি বিদ্যুৎ বিভাগ।

প্রায় ৭ কোটি টাকা ব্যয়ে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোপালগঞ্জ শহরের বেদগ্রাম এলাকায় চৌরাস্তা নির্মানের কাজ করছে সড়ক বিভাগ।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারী সারাদেশের সব সড়ক-মহাসড়কে থাকা সকল ধরনের খুটি ৬০ দিনের মধ্যে অপসারণের নির্দেশ দেয় হাইকোর্ট। কিন্তু, গোপালগঞ্জের সড়ক-মহাসড়কের কোথাও খুটি অপসারণ করেনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। রাস্তার উপর খুঁটি রেখেই রাস্তার কাজ দ্রুত চালিয়ে যাচ্ছে সড়ক বিভাগের টিকাদার।

সিডিউল অনুযারী এ মাসের মধ্যে কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। সড়ক প্রস্ততকরণ কাজ শেষ পর্যায়ে হলেও রাস্তার মাঝে অন্ততঃ ১৪টি বৈদ্যুতিক খুঁটি থাকায় মারাত্মক দূর্ঘটনা ঝুঁকিতে রয়েছে এ পথে চলাচলকারীরা।

বৈদ্যুতিক খুটি সরানোর ব্যাপারে উর্দ্ধতন কতৃপক্ষকে জানানো হয়েছে বলে জানান সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী খঃ মোঃ শরীফুল আলম। তবে, এ বিষয়ে বক্তব্য দিতে রাজি হয়নি, বিদ্যুৎ বিভাগ(ওজোপাডিকো)-এর নির্বাহী প্রকৌশলী মামুনর রশীদ।
হাইকোর্টের নিদের্শনা মেনে দ্রুত খুটি অপসারণসহ নিয়ম মেনে উন্নয়ন কাজ সম্পন্ন করার দাবী এলাকাবাসীর।

মোজাম্মেল হোসেন মুন্না/গোপালগঞ্জ