মাহমুদ উল্লাহ্‌
বিজনেস করেসপন্ডেন্ট

কর্মসংস্থান ব্যাংক এর লোগো। ছবি: সংগৃহীত

ঋণ কর্মসূচি:

কর্মসংস্থান ব্যাংক নিম্নোক্ত কর্মসূচিতে ঋণ প্রদান করে থাকেঃ

(ক) নিজস্ব কর্মসূচি : দেশের বেকার বিশেষ করে শিক্ষিত বেকার যুবদের আত্মকর্মসংস্থান সৃজনে ঋণ সহায়তা প্রদান;

(খ) ক্ষুদ্র ব্যবসা ঋণ কর্মসূচি : দেশের বেকার বিশেষ করে শিক্ষিত বেকার যুবদের আত্মকর্মসংস্থানের জন্য ক্ষুদ্র ব্যবসা ঋণ কর্মসূচি ;

(গ) বিদেশে কর্মসংস্থান ঋণ কর্মসূচি : বিদেশে গমনেচ্ছুকদের সহজ শর্তে ঋণ প্রদানের মাধ্যমে বিদেশ গমনে সহায়তা প্রদান;

(ঘ) সরকারের বিশেষ কর্মসূচি

(১) কৃষিভিত্তিক শিল্প স্থাপনে ঋণ সহায়তা কর্মসূচি:

(ক) কৃষিভিত্তিক শিল্পের বিকাশ ঘটানো;

(খ) গ্রামীণ পর্যায়ে শিল্প বিকাশের সুযোগ সৃষ্টি করা;

(গ) জিডিপিতে কৃষিভিত্তিক শিল্পের অবদান বৃদ্ধি করা;

(ঘ) কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করা ;

(২) শিল্প কারখানা/প্রতিষ্ঠানের স্বেচ্ছা-অবসরপ্রাপ্ত/কর্মচ্যুত শ্রমিক/ কর্মচারীদের কর্মসংস্থানে জামানতবিহীন ক্ষুদ্র ঋণ প্রদান কর্মসূচি:

শিল্প কারখানার স্বেচ্ছা-অবসরপ্রাপ্ত/কর্মচ্যুত শ্রমিক/কর্মচারীদের কর্মসংস্থানে জামানতবিহীন ক্ষুদ্র ঋণ প্রদানের মাধ্যমে আত্মকর্মসংস্থানের উপযোগী হিসেবে গড়ে তোলা ;

(৩) বাঝুঁকানিশিনি-বাংলাদেশে ঝুঁকিপূর্ণ কাজে নিয়োজিত শিশুশ্রম নিরসনকল্পে ঋণ প্রদান কর্মসূচি:

বাংলাদেশে ঝুঁকিপূর্ণ কাজে নিয়োজিত শিশুশ্রম নিরসনকল্পে শিশু শ্রমিকের পিতা-মাতাদের আত্ম-কর্মসংস্থানে (জামানতবিহীন) ক্ষুদ্র ঋণ প্রদান;

(৪) বাংলাদেশ ব্যাংক মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ ঋণ সহায়তা কর্মসূচি (বিবিমপ্রাস):

(ক) প্রাণিজ আমিষ বৃদ্ধির মাধ্যমে দৈহিক ও মেধার বিকাশ সাধন;

(খ) কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা;

(গ) জিডিপিতে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদের অবদান বৃদ্ধি করা;

(৫) বাংলাদেশ ব্যাংক ‘দুগ্ধ উৎপাদন ও কৃত্রিম প্রজনন খাতে পুনঃঅর্থায়ন স্কিম’ (বিবিকৃপ):

(ক) কৃত্রিম প্রজননের মাধ্যমে জাত উন্নয়নপূর্বক দুগ্ধ উৎপাদন বৃদ্ধি করা ;

(খ) কৃত্রিম প্রজনন সেবা সম্প্রসারণের মাধ্যমে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন ও কর্মসংস্থান সৃষ্টি;

(গ) দুগ্ধ উৎপাদনের মাধ্যমে জিডিপিতে অবদান বৃদ্ধি করা;

(ঙ) কনজুম্রযিস ক্রেডিট স্কিম/ ব্যক্তিগত (পারসোনাল) ঋণ : ব্যাংকে কর্মরত স্থায়ী কর্মকর্তা/কর্মচারীদের নিত্য ব্যবহার্য ভোগ্যপণ্য সামগ্রী ক্রয়ের জন্য কনজুমারস ক্রেডিট স্কিমের আওতায় ঋণ প্রদান;

(চ) কম্পিউটার/ল্যাপটপ ক্রয় ঋণ : ব্যাংকে কর্মরত স্থায়ী কর্মকর্তা/কর্মচারীদের তথ্যপ্রযুক্তিতে দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য কম্পিউটার/ল্যাপটপ ক্রয়ে ঋণ প্রদান;

(ছ) গৃহ নির্মাণ ঋণ : ব্যাংকে কর্মরত স্থায়ী কর্মকর্তা/কর্মচারীদের আবাসন সুবিধা সৃষ্টির জন্য স্বল্প সুদে ঋণ প্রদান;

(জ) মোটরসাইকেল ঋণ : ব্যাংকে কর্মরত স্থায়ী কর্মকর্তা/কর্মচারীদের পরিবহন/যোগাযোগ সুবিধার জন্য স্বল্প সুদে ঋণ প্রদান;

যে সকল খাতে ঋণ প্রদান করা হয়ে থাকে তাহলোঃ

১) মৎস্য সম্পদ : মৎস্য চাষ : কার্প জাতীয়, পাংগাস, চিংড়ি, মনোসেক্স তেলাপিয়া, থাই কৈ, মিশ্র মৎস্য চাষ ও রেণু পোনা উৎপাদন (পুকুরে)।

২) প্রাণিসম্পদ : দুগ্ধ খামার, গরু মোটাতাজাকরণ, ছাগল/ভেড়া/মহিষ পালন, ব্রয়লার/ককরেল মুরগির খামার, লেয়ার মুরগির খামার, কোয়েল/টার্কির খামার।

৩) যানবাহন/পরিবহন সেবা : টিভিসএস টু-হুইলার/থ্রি হুইলার-এর মাধ্যমে পণ্য/যাত্রী পরিবহন সেবা প্রকল্পে ঋণ প্রদান : লাইসেন্সপ্রাপ্ত/শিক্ষানবিশ ড্রাইভার/উদ্যোক্তাদের আত্মনির্ভরশীল করে গড়ে তোলা, পণ্য সরবরাহ/পরিবহন সহজীকরণ, যাত্রীসেবার মান উন্নয়ন, জেলা সদর, উপজেলা সদরসহ গ্রামাঞ্চলে উন্নত পরিবহন ব্যবস্থা পৌঁছানো, দক্ষ জনশক্তির মাধ্যমে সড়ক দুর্ঘটনা হ্রাসকরণ ও বেকার যুবদের আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে বেকারত্ব হ্রাস ও দারিদ্র্য বিমোচনে সহায়তাকরণের নিমিত্তে টিভিএস অটো বাংলাদেশ লিমিটেডের সাথে কর্মসংস্থান ব্যাংকের সমঝোতা স্মারক সম্পাদন ও ঋণ প্রদান।

৪) শিল্প-কারখানা : মৎস্য হ্যাচারি, পোল্ট্রি হ্যাচারি, কৃষি যন্ত্রপাতি তৈরির কারখানা, প্রাণী খাদ্য তৈরির কারখানা, মৎস্য খাদ্য তৈরির কারখানা, চিড়া/মুড়ি কল/ শিল্প, ধানের চাতাল/রাইস মিল, বেকারি শিল্প, অয়েল মিল, স’মিল, ফলজাত খাদ্য শিল্প (জ্যাম/জেলি/জুস/আচার/শরবত/সিরাপ/সস), সুষম সার প্রস্তুতকরণ, আটা/ময়দা/সুজি প্রস্তুতকরণ, ডিজাইন ও ফ্যাশনওয়্যার, স্টার্চ, গ্লুকোজ, ডেক্সট্রোজ উৎপাদনকারী শিল্প,আইসক্রিম ফ্যাক্টরি, গুঁড়া মসলা উৎপাদনকারী শিল্প, সুগন্ধি চাল উৎপাদন, ডাল প্রক্রিয়াজাতকরণ, নারিকেল তেল উৎপাদন, বীজ প্রক্রিয়াজাতকরণ, রাবার প্রক্রিয়া- জাতকরণ, চামড়া শিল্প ইত্যাদি।

৫) ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প : মৃৎ শিল্প, কামারের কাজ, ব্লক-বাটিক/প্রিন্টিং, গ্রামীণ স্যানিটারি ল্যাট্রিন তৈরি, তাঁত শিল্প, কাঠের/ স্টিলের আসবাবপত্র তৈরিকরণ, রেশম বস্ত্র উৎপাদনকারী শিল্প, কৃষি যন্ত্রপাতি তৈরি, মোমবাতি/আগরবাতি/গোলাপজল/দাঁতের মাজন/কয়েল তৈরি, বাঁশ ও বেত শিল্প, যন্ত্রাংশ তৈরির কারখানা, ক্ষুদ্র প্রিন্টিং এবং সাইনবোর্ড তৈরি, চামড়াজাত শিল্প, শুটকি মাছ প্রক্রিয়াকরণ, আইসক্রিম/বরফকল ইত্যাদি।

৬) অন্যান্য উৎপাদনশীল প্রকল্প : মাশরুম চাষ, সবজি চাষ, সেরিকালচার (রেশম চাষ), ফল চাষ, মৌমাছি চাষ, নকশীকাঁথা তৈরি, পান বরজ, নার্সারি, ফুল চাষ ইত্যাদি।

৭) সেবা খাত : সেলুন/লন্ড্রি, বিউটি পার্লার এবং হারবাল ট্রিটমেন্ট, পাওয়ার টিলার, কম্পিউটার সেবা, ফটোকপি সেবা, টিভি/ভিসিআর/বৈদ্যুতিক সরঞ্জামাদি/ মোবাইল ফোন মেরামত, গ্রামীণ যানবাহন, সেলাই মেশিন, লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং/গাড়ি মেরামত ওয়ার্কশপ, ডায়াগনস্টিক সেন্টার/ক্লিনিক/দন্ত চিকিৎসা, স্টুডিও, শিক্ষা সেবা (কোচিং সেন্টার/কিন্ডার গার্টেন), ক্যাবল অপারেটরস, জেনারেটরের মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিতরণ, কমিউনিটি সেন্টার, বিনোদন পার্ক, আবাসিক হোটেল, পর্যটন কটেজ, সোলার পাওয়ার, সাইবার ক্যাফে ইত্যাদি।

৮) বাণিজ্যিক খাত : মুদি/মনোহারি, ডিপার্টমেন্টাল স্টোর, কাপড়ের ব্যবসা/তৈরি পোশাক ব্যবসা, প্রাণী খাদ্য/মৎস্যখাদ্য বিক্রয়, ধান/ চাল/অন্যান্য কৃষি পণ্য ক্রয়-বিক্রয়, সার/বীজ/কীটনাশক ব্যবসা, পার্টসের দোকান, ইলেকট্রিক সামগ্রী, ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী, ঔষধ ব্যবসা, শুটকি মাছ ব্যবসা, পাথর ক্রয় বিক্রয়, বালি ক্রয়/বিক্রয় ব্যবসা, পুরাতন লোহালক্কর (স্ক্রেপ/ভাঙারি) ব্যবসা, জুতার ব্যবসা, ক্রোকারিজ সামগ্রী ক্রয় বিক্রয়, হার্ডওয়ার ব্যবসা, হোটেল/রেস্টুরেন্ট ব্যবসা, আসবাবপত্র বিক্রয়, অন্যান্য ব্যবসা/বিভিন্ন ধরনের ক্ষুদ্র ব্যবসা ইত্যাদি।

কর্মসংস্থান ব্যাংক হতে ঋণ পাওয়ার যোগ্যতাঃ

(ক) উদ্যোক্তাকে বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে;

(খ) শাখার অধিক্ষেত্রের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে। স্থায়ী বাসিন্দা না হলে শাখার অধিক্ষেত্রের একজন স্থায়ী বাসিন্দাকে ঋণের গ্যারান্টার হতে হবে;

(গ) বেকার/অর্ধ বেকার হতে হবে;

(ঘ) বয়স সাধারণত ১৮ হতে ৪৫ বছর হতে হবে। তবে পুরাতন ঋণ গ্রহীতাদের ক্ষেত্রে বয়সসীমা শিথিলযোগ্য;

(ঙ) উদ্যোক্তাকে ইকুইটি বহনের ক্ষমতা থাকতে হবে (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে);

(চ) প্রকল্প পরিচালনার বিষয়ে উপযুক্ত প্রশিক্ষণ/অভিজ্ঞতা থাকতে হবে;

(ছ) ঋণ ব্যবহারের যোগ্যতাসহ ঋণ পরিশোধের ক্ষমতা ও আর্থিক আচরণে সুনামের অধিকারী হতে হবে;

(জ) অন্য কোনো ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠান, এনজিও অথবা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ঋণখেলাপি হলে ঋণ পাওয়ার যোগ্য হবেন না;

(ঝ) ঋণ নীতিমালার অন্যান্য নিয়ম অনুসরণে সক্ষম হতে হবে।

ব্যাংকের বিভিন্ন কর্মসূচির সুদহার নিম্নরূপঃ

ক) নিজস্ব কর্মসূচি :

(i) উৎপাদনশীল ও সেবামূলক খাত : ১১% , ঋণটি অনিয়মিত/খেলাপি হলে ১%এবং মেয়াদোত্তীর্ণ হলে আরও ১% যোগ করে সুদারোপযোগ্য;

(ii) বাণিজ্যিক খাত : ১৩% , ঋণটি অনিয়মিত/খেলাপি হলে ১% এবং মেয়াদোত্তীর্ণ হলে আরও ১% যোগ করে সুদারোপযোগ্য ;

খ) ক্ষুদ্র ব্যবসা ঋণ কর্মসূচি : ১৩% ;

গ) কৃষিভিত্তিক শিল্প স্থাপনে ঋণ সহায়তা কর্মসূচি : ৮ – ৯% ;

ঘ) বাংলাদেশ ব্যাংক মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ ঋণ সহায়তা কর্মসূচি (বিবিমপ্রাস) : ১০% ;

ঙ) বাংলাদেশ ব্যাংক দুগ্ধ উৎপাদন ও কৃত্রিম প্রজনন খাতে পুনঃঅর্থায়ন স্কিম (বিবিকৃপ) : ৫% ;

সকল ঋণের ক্ষেত্রে সরল সুদ প্রযোজ্য এবং সুদের হার পরিবর্তনযোগ্য।

আজকের পত্রিকা/এমইউ/এমএইচএস/জেবি