গ্রেফতার হওয়া ধর্ষক

গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার চরমানিকদাহ গুচ্ছগ্রামে এক বুদ্ধি প্রতিবন্ধী নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।গতকাল রোববার রাতে তাকে সুকৌশলে ধর্ষণ করা হয় বলে ওই নারী থানায় অভিযোগ করেছেন।

সদর থানা পুলিশ ধর্ষক শিমুল (২৫) কে গ্রেফতার করেছে। তার বাড়িও একই এলাকায়। তার পিতার নাম শাহাজান মোল্লা। সে একজন রাজমিস্ত্রী।

জানা গেছে, ধর্ষিতা ওই নারীর স্বামী শহরে একজন পুরি বিক্রেতা। স্বাভাবিকভাবেই তাকে বাড়ি যেতে রাত হয়। গতকাল রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে তিন সন্তানের জননী ওই নারী ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। স্বামী ঘরে না থাকার সুযোগে শিমুল মোল্লা  ঘরে ঢুকে স্বামী সেজে তার সাথে অবৈধ কাজ করে। কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই ওই নারী বুঝতে পারে ওই লোক তার স্বামী নয়। রাত ১২টার দিকে তার স্বামী বাড়ি ফিরে আসলে বিষয়টি তার স্বামীকে জানায়।

পরে সোমবার দুপুরে এ বিষয়ে পুলিশকে জানালে পুলিশ ওই ধর্ষককে গ্রেফতার করে।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম জানান, এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে। অভিযুক্ত শিমুল মোল্লা প্রাথমিকভাবে পুলিশের কাছে এ ঘটনা স্বীকার করেছে। ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষা করাতে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হযেছে হয়েছে বলে জানান ওসি।

মোজাম্মেল হোসেন মুন্না/গোপালগঞ্জ