বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ থেকে ডিটিএইচ সেবা প্রদানে বাণিজ্যিক চুক্তি স্বাক্ষর করেছে বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেড (বিসিএসসিএল) এবং বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স লিমিটেড। এ চুক্তির আওতায় বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স স্যাটেলাইট ট্রান্সপন্ডার এবং আপ-লিংকিং সেবা গ্রহণ করে গ্রাহক পর্যায়ে ‘আকাশ ডিটিএইচ’ সেবা প্রদান করবে।

রাজধানীর বাংলামোটরে বিসিএসসিএল অফিসে গতকাল সোমবার বিকালে এ সংক্রান্ত দুইটি পৃথক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। বিসিএসসিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহরীয়ার আহমেদ চৌধুরী এবং বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ডিএস ফায়সাল হায়দার নিজ নিজ পক্ষে চুক্তিপত্রগুলোতে সই করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিসিএসসিএল’র চেয়ারম্যান ড. শাহ্জাহান মাহমুদ, মহাব্যবস্থাপক (অপারেশন্স) মো. তাসকিনুর রহমান, সহকারি মহাব্যবস্থাপক (বিক্রয় ও প্রকৌশল) বখতিয়ার আহমেদ এবং বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স’র প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা লুৎফর রহমান, হেড অব টেকনোলজি আনোয়ারুল আজিম ও মহাব্যবস্থাপক (বিজনেস প্ল্যানিং ও সাপ্লাই চেইন) জিয়া হাসান খান।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানির চেয়ারম্যান ড. শাহ্জাহান মাহমুদ বলেন, “বাংলাদেশে অগ্রগতিতে এবং জনকল্যাণে প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার চায় সরকার। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ থেকে ডিটিএইচ সেবা সেই প্রচেষ্টারই অংশ। বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স’র আকাশ ডিটিএইচ গ্রাহক পর্যায়ে এ সেবা নিরবিচ্ছিন্ন ও মানসম্পন্ন উপায়ে নিশ্চিত করতে পারবে বলে আমরা বিশ্বাস করি।”

বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ডিএস ফায়সাল হায়দার বলেন, “বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ আমাদের জাতীয় গৌরব ও অর্জনের বড় প্রতীক। এই উপগ্রহ থেকে ডিটিএইচ সেবা প্রদানে আমরা অঙ্গীকারাবদ্ধ। এ সেবা উন্নত করার ব্যাপারে আমরা বিভিন্ন উপায়ে চেষ্টা করছি।”

বাংলাদেশে অনেক আধুনিক টিভি থাকলেও দর্শকরা ডিটিএইচ (ডিরেক্ট টু হোম) প্রযুক্তির সেবা গ্রহণের অবাধ স্বাধীনতা আগে পাননি। এ অচলায়তন ভাঙতে গত মে মাসে দেশের প্রথম এবং একমাত্র আইনসম্মত ডিটিএইচ অপারেটর ‘আকাশ’ যাত্রা শুরু করে। বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স’র এ সেবা টিভি শিল্পের সনাতনী ধারা পরিবর্তনে এবং একে অনন্য একটি উচ্চতায় নিয়ে যেতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

বর্তমানে দেশের ২০টি জেলায় আকাশ ডিটিএইএচ বাণিজ্যিকভাবে পাওয়া যাবে। জেলাগুলো হলো- ঢাকা, ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল, কিশোরগঞ্জ, নরসিংদী, গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, কুমিল্লা, নোয়াখালী, ফেনী, কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, খাগড়াছড়ি, রাঙামাটি, সিলেট, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া এবং সুনামগঞ্জ। শিগগিরই দেশের অন্যান্য জেলাতেও অনুমোদিত খুচরা বিক্রেতাদের কাছ থেকে এ ডিটিএইচ পাওয়া যাবে।