বিশ্বখ্যাত টিভি চ্যানেল এইচবিও’র অরিজিনাল সিরিজে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছেন বাংলাদেশের তরুণ অভিনেতা সুদীপ বিশ্বাস দীপ। ‘ইনভিজিবল স্টোরিজ’ নামের ছয় পর্বের সিরিজের শুটিং এরইমধ্যে সিঙ্গাপুরে করেছেন তিনি। একজন প্রবাসী বাংলাদেশির চরিত্রে অভিনয় করেছেন দীপ।

নতুন এই খবরটি গোপন রাখলেও গত ১১ই নভেম্বর সেটি প্রকাশ পায় নতুন এই সিরিজের বিহাইন্ড দ্য সিন প্রকাশের পর। এইচবিও এশিয়ার ফেসবুক পেজ ও ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ পায় ‘মেকিং অব ইনভিজিবল স্টোরিজ’। আড়াই মিনিট ব্যাপ্তির ভিডিওতে বেশ কয়েকটি দৃশ্যে দেখা মিলেছে ঢাকার অভিনেতা দীপের। তার সঙ্গে ছিলেন সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়ার শিল্পীরাও।

বাংলাদেশের অভিনেতা দীপ বলেন, ‘ইনভিজিবল স্টোরিজ’ ছয় পর্বের ধারাবাহিকের একটি পর্ব তৈরি হয়েছে আমাকে কেন্দ্র করে। আগামী বছরের ৫ই জানুয়ারি এই ধারাবাহিকের প্রচার শুরু হবে। এর আগে ২০১৪ সালে ‘আইডেনটিটি’ শিরোনামে একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলাম। রুহুল রবিন খান পরিচালিত চলচ্চিত্রটি দেশের বাইরে ৯টি আন্তর্জাতিক উৎসবে দেখানো হয়। ২০১৬ সালে সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত উৎসবে প্রদর্শিত হয়। সেখানে দেখে এইচবিও কর্তৃপক্ষ আইডেনটিটির পরিচালক রুহুল রবিন খানের সঙ্গে যোগাযোগ করে আমার বিষয়ে। গত এপ্রিলে তারা আমার আগের স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবির পরিচালক রবিন খানের মাধ্যমে যোগাযোগ করেন। অডিশন হয় ও নির্বাচন হয় অনলাইনে। বাংলাদেশের বেশ কয়জন অডিশন দেন। তবে কিছুদিন পর আমাকে তাঁরা কাজটির জন্য চূড়ান্ত করেন এবং সিঙ্গাপুর যেতে বলেন। গত জুন মাসে আমি প্রথম পর্যায়ের শুটিং করি সেখানে। একই মাসে ফিরে আসি। আবার জুলাই মাসে যাই। শেষ করে ঢাকায় ফিরি আগস্টে। পুরো কাজ হয়েছে সিঙ্গাপুরে।

দীপ আরো বলেন, আমার জন্য এ কাজ স্মরণীয় হয়ে থাকবে আজীবন। অসাধারণ অভিজ্ঞতা। সেটা তো আর বলে প্রকাশ করা যাবে না। তারা আসলে প্রত্যেক মানুষ নিজ নিজ কাজ সম্পর্কে অবগত থাকে। এটাই হলো তাদের মূল সৌন্দর্য। বাড়তি পাওনা হলো, এই সিরিজটি অনেক দেশের শিল্পীদের সমন্বয়ে তৈরি হয়েছে। এর মধ্যে আমার সহশিল্পী ছিলেন ইন্দোনেশিয়ার এক অভিনেত্রী। জানা গেছে, ছয়টি ভিন্ন ভিন্ন গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছে ধারাবাহিকটি। এর মধ্যে সুদীপের কণ্ঠে ইংরেজির পাশাপাশি কিছু বাংলা সংলাপও রয়েছে।

এইচবিও এশিয়া কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সিরিজটির প্রিমিয়ার হচ্ছে ৫ই জানুয়ারি রাত ১০টায় এইচবিও চ্যানেল এবং এইচবিও গো নামের ওয়েবে। তারও আগে প্রকাশ পাচ্ছে সিরিজের ট্রেলার। এর রচয়িতা, নির্মাতা ও নির্বাহী প্রযোজক লার জিয়ানের ভাষ্য এমন, সিঙ্গাপুরের বহুমাত্রিক সংস্কৃতির অব্যক্ত গল্প ও অন্ধকার জগৎকে তুলে ধরা হবে এই সিরিজে।