ছবি : প্রতীকী। সংগৃহীত

বাঘদের মধ্যে সবচেয়ে ছোট প্রজাতির হলো সুমাত্রার বাঘ। এদের গায়ে কমলা রঙের মধ্যে চওড়া কালো দাগ থাকে। ডব্লিইডব্লিইএফ নামে একটি অলাভজনক সংস্থার মতে ইন্দোনেশিয়ান এই বাঘ বিপন্ন প্রজাতির। বর্তমানে এই প্রজাতির ৪০০ বাঘ রয়েছে। এই প্রজাতির বাঘ ধরলে কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

১০ ফেব্রুয়ারি রবিবার লন্ডনের চিড়িয়াখানায় এই বিরল প্রজাতির বাঘ এবং তার সঙ্গীর প্রথম মিলন হওয়ার কথা ছিল। আশা ছিল প্রেমঘন ইতিবাচক ফলাফল হবে। কিন্তু সঙ্গীকেই মেরে ফেলল বাঘ।

মেলাটি অন্যতম বিরল এবং ছোট প্রজাতির সুমাত্রার বাঘ। মেলাটিকে তার নতুন সঙ্গী অসীমের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। তাদের সাক্ষাৎকার শুরু হওয়ার পরে দ্রুত তা রণাঙ্গনে পরিণত হয়।

তাদের তর্জন গর্জন শুনে চিড়িয়াখানার কর্মীরা ঝুঁকি নিতে চায়নি। দুজনকে দূরে সরাতে বিশেষজ্ঞদের সাহায্য চান। কিন্তু কিছু করে ওঠার আগেই অসীম মেলাটির উপরে ঝাঁপিয়ে পড়ে তাকে মেরে ফেলে।

এই ঘটনার পরে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ এক মন্তব্যে বলেছে, ‘লন্ডনের জেএসএল চিড়িয়াখানার সকলেই মেলাটির এই অকালমৃত্যুতে শোকগ্রস্ত।’

‘ইউরোপীয় কনজারভেশন প্রোগ্রাম’-এর পরিকল্পনা অনুযায়ী অসীমকে জেএসএল চিড়িয়াখানায় নিয়ে আসা হয়েছিল মেলাটির সাথে মেলামেশার মাধ্যমে তাদের প্রজাতির বাঘের সংখ্যা বাড়ানোর জন্য।