মশার কামড় থেকে বাঁচতে গাছ লাগান। ছবি: সংগৃহীত

শীতের প্রায় শেষ, দিন দিন তাপমাত্রা বাড়ছে। একই সঙ্গে বাড়ছে মশার উপদ্রব। মশার উপদ্রবের কারণে বিক্রি বাড়ছে মশানাশক বিভিন্ন পণ্যের। কিন্তু মশানাশক সেসব পণ্য আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য অনেক বেশি ক্ষতিকর। রাসায়নিক বিভিন্ন উপাদানে তৈরি মশানাশক কয়েলের ধোঁয়াও আমাদের শ্বাসযন্ত্রের ক্ষতি করে।

মশার উপদ্রব থেকে বাঁচতে তাই বলে সারাক্ষণ মশারি টাঙিয়েও বসে থাকা সম্ভব নয়। কিছু গাছ রয়েছে, যেগুলোর গন্ধ মশা সহ্য করতে পারে না। সেসব গাছ যদি বাড়ির উঠোনে কিংবা ঘরের আশাপাশে লাগানো যায়, তাহলে মশা এলাকা ছেড়ে পালাবে। চলুন জেনে নিই, সেই গাছগুলো সম্পর্কে।

গাঁদা ফুল গাছ

গাঁদা ফুলের গন্ধে শুধু মশা নয়, যে কোনও পোকা-মাকড়ই এর ধারে কাছে ঘেঁষে না। ছবি: সংগৃহীত

এই গাছটি মশা তাড়াতে কার্যকরী। গাঁদা ফুলের গন্ধে শুধু মশা নয়, যে কোনও পোকা-মাকড়ই এর ধারে কাছে ঘেঁষে না। তাই বাড়ির চারপাশে গাঁদা গাছ লাগান। দূরে থাকবে মশা, মাছি, পোকা-মাকড়। একই সঙ্গে বাড়বে বাড়ির শোভাও!

তুলসি গাছ

তুলসির গন্ধ মশা, মাছি, পোকা-মাকড়কে দূরে রাখে। ছবি: সংগৃহীত

তুলসির নানা স্বাস্থ্য ও আয়ুর্বেদিক গুণ রয়েছে। তুলসি গাছ পরিবেশকে জীবাণুমুক্ত, বিশুদ্ধ রাখতে সাহায্য করে। তুলসির গন্ধ মশা, মাছি, পোকা-মাকড়কে দূরে রাখে। তাই বাড়িতে টবে হলেও তুলসি গাছ লাগান।

লেবু গাছ

লেবু পাতার গন্ধ মশা, মাছি, পোকামাকড় মোটেই সহ্য করতে পারে না। ছবি: সংগৃহীত

লেবু পাতার গন্ধ মশা, মাছি, পোকামাকড় মোটেই সহ্য করতে পারে না। তাই মশা তাড়াতে বাড়ির আশেপাশে লেবু গাছ লাগান।

এছাড়া রসুন গাছ, ল্যাভেন্ডার গাছও বাড়ির আশেপাশে লাগাতে পারলে, মশার উপদ্রব থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। ল্যাভেন্ডার গাছ লাগাতে না পারলেও ল্যাভেন্ডারের গন্ধযুক্ত সুগন্ধি বা রুম ফ্রেশনার ব্যবহার করতে পারেন, যা মশার উপদ্রব নাশ করবে।

আজকের পত্রিকা/ কেএইচআর/এমএইচএস