বান্দরবানের একটি মনোরম দৃশ্য।

পর্যটকদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে অনির্দিষ্টকালের জন্য বান্দরবানের জেলা উপজেলার দূরবর্তী পর্যটনকেন্দ্রগুলোতে ভ্রমণে নিরুৎসাহিত করছে বিজিবি-পুলিশ। তবে বান্দরবানের জেলা সদরের কাছাকাছি পর্যটনকেন্দ্রগুলোতে পর্যটকরা ভ্রমণ করতে পারবেন বলে জানিয়েছেন পার্বত্য জেলার থানচি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আরিফুল হক মৃদুল।

তিনি আরো জানান, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি যতদিন স্বাভাবিক হবে না ততদিন পর্যন্ত পর্যটকদের আগমনে নিরুৎসাহিত করা হবে। পাহাড়ের পর্যটকদের সুবিধা–অসুবিধার কথা চিন্তা করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তবে থানচি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল হক জানান, রাঙামাটি পার্বত্য জেলার বাঘাইছড়িতে নির্বাচনের দিনগুলিতে প্রিসাইডিং অফিসারসহ সাত জন মারা যায়। বাঘাইছড়ির এই ঘটনা আর থানচি নির্বাচনের দিন সহিংসতার কথা মাথায় রেখে পর্যটকদের ভ্রমণে না আসার জন্য নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে।

এ ছাড়াও তিনি আরো জানান, দূরবর্তী এলাকাগুলোতে পুলিশের টহল থাকে না আর নিরাপত্তা দেওয়া সম্ভব না। আর থানচির রেমাক্রির মুখের পর থেকেই পর্যটকরা অনেক ভিতরে ভ্রমণ করতে যায়, সেখানে কারো নিরাপত্তা দেওয়া সম্ভব না। সব কিছু স্বাভাবিক হলে আবারও পর্যটকদের জন্য পর্যটনকেন্দ্রগুলোতে ভ্রমণের জন্য উৎসাহিত করা হবে।

এদিকে, পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বান্দরবানের থানচি উপজেলায় পর্যটকদের প্রবেশে নিরুৎসাহিত করা হয়েছিল ১৬-১৯ মার্চ পর্যন্ত ।

আজকের পত্রিকা/বান্দরবান/জেবি