শিশু । প্রতীকী ছবি

হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করেছে ৪ লম্পট। ধর্ষিতা যাত্রাপাশা গ্রামের সাহেদ মিয়ার কন্যা (১৪)।

রবিবার সন্ধার পর যাত্রাপাশা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন মাঠে। ধর্ষিত কিশোরীকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় একই গ্রামের লেচু মিয়ার পুত্র মিলাদ (২২) ও তার ৩ সহযোগীর বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুুতি নিয়েছেন ধর্ষিতার পিতা।

জানা যায়, রবিবার প্রাকৃতিক ডাকে সারা দিতে সন্ধার পর ঘর থেকে বের হয় সাহেদ মিয়ার কন্যা। এসময় মিলাদ ও তার ৩ সহযোগী তাকে মুখ বেঁধে নিয়ে গিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। পরে ধর্ষিতা বাড়িতে এসে ঘটনা জানালে অভিবাবকরা ধর্ষিতাকে মুমুর্ষ অকস্থায় হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করান।

এ ব্যাপারে বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ রঞ্জন কুমার সামান্ত বলেন ঘটনাটি মুঠোফোনে সাহেদ মিয়া তাকে জানিয়ে বলেছেন কন্যার চিকিৎসার জন্য মামলা করতে বিলম্ব হচ্ছে। তবে সোমবার সন্ধার পরই মামলা হবে বলে নিশ্চিত করেছেন ওসি। এছাড়াও ওসি বলেন অপরাধীদের গ্রেফতারে ইতিমধ্যেই তৎপরতা চালানো হচ্ছে।

-সুজন মিয়া/বানিয়াচং