ক্রিকেট ওয়েবসাইট পাক প্যাশন নেটের কাছে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বাংলাদেশের পাকিস্তান সফর, দানেশ কানেরিয়া, বিরাট কোহলি ও পিএসএল সহ নানান বিষয়ে খোলামেলা আলোচনা করেন আব্দুর রাজ্জাক। সেখানে বাংলাদেশকে কিছুটা তাচ্ছিল্যই করেন রাজ্জাক। বাংলাদেশের মতো দলকে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের এতো অনুরোধ তার পছন্দ হয়নি বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন।

শ্রীলঙ্কার সফর দিয়ে পাকিস্তানে টেস্ট ফিরে আসে। সেই সফর নিয়ে বলতে গিয়ে রাজ্জাক বলেন, ‘আমি খুশি শ্রীলঙ্কা পাকিস্তানে এসেছে, সামনে বাংলাদেশও আসবে। তবে আপনি দেখেন শ্রীলঙ্কার তারকা খেলোয়াড়রা পাকিস্তানে সিরিজ খেলতে আসেননি। এমনকি টি-টোয়েন্টি সিরিজে একটি অনভিজ্ঞ ও নবীণ দল পাঠিয়েছে শুধুমাত্র দুই দেশের ক্রিকেটীয় সম্পর্ক রক্ষার্থে। সিরিজটা এমন হওয়া উচিত ছিল দুই দলের সেরা খেলোয়াড়রাই তাদের সেরা ক্রিকেট নৈপুণ্য প্রদর্শন করবে। এমনকি বাংলাদেশ সিরিজেও বাংলাদেশের তারকা খেলোয়াড় মুশফিকুর রহিমও আসবে না, যা আমার কাছে মোটেও ভালো লাগেনি।’

বাংলাদেশের সঙ্গে পাকিস্তান সিরিজ আয়োজনের জন্য আলোচনায় কতটুকু সফল ছিলো এই প্রশ্নের উত্তরে রাজ্জাক বলেন, ‘শ্রীলঙ্কার পর বাংলাদেশ আসছে পাকিস্তানে, এটি ভালো ব্যাপার। তাদরে আসাটা জরুরী ছিল। তবে মিডিয়ায় যা শোনা যাচ্ছে, এই সিরিজ আয়োজনের জন্য পাকিস্তান তাদের এশিয়া কাপ আয়োজনের সুযোগ ছেড়ে দিয়েছে, এমনটা হলে তা ঠিক হয়নি। বাংলাদেশের মত দলের বিপক্ষে সিরিজ আয়োজনে সবকিছু একটি সাধারণ সিরিজ আয়োজনের মতোই হওয়া উচিত ছিল। আগে শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশের মতো দলগুলো আমাদের হোম সিরিজ আয়োজনের জন্য দল খোজার বিবেচনায় সবার শেষে থাকত। এখন বাংলাদেশের মতো দলের সাথে সিরিজ আয়োজনেই যদি এতো কিছু ছেড়ে দিতে প্রয়োজন হয় তাহলে তা কতোটুকু সঠিক হলো? আমার মনে হয় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের এই ব্যাপারে আইসিসির সাথে আরো ভালো করে আলোচনা করা উচিত ছিল। তাদের সবুজ সংকেত থাকলে বড় দলগুলো কোনো দাবি ছাড়াই পাকিস্তান সফরে আসবে।’

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের পাকিস্তান সফর শুরু হবে ২৪ জানুয়ারি তিন ম্যাচ টি-োটয়েন্টি সিরিজের মধ্য দিয়ে। পরবর্তীতে ফেব্রুযারিতে বাংলাদেশ একটি টেস্ট খেলবে। ২য় টেস্ট ওএকটি ওয়ানডে খেলতে এপ্রিলে ৩য় দফা পাকিস্তানে যাবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।