আইসিসি কেন আলিম দারকেই বাংলাদেশের ম্যাচ পরিচালনার দায়িত্ব দিয়ে থাকে! ছবি: সংগৃহীত

এত বিতর্কের পরও বাংলাদেশের পিছু ছাড়ছেন না আলিম দার! বাংলাদেশের ম্যাচে আলিম দারের উপস্থিতি মানেই নিত্য নতুন বিতর্কের সৃষ্টি। পাকিস্তানি এই আম্পায়ার প্রতিবারই বিতর্কিত সিদ্ধান্ত দিয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে পরোক্ষভাবে অবস্থান নিচ্ছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

২৪ জুন সোমবার সাউদাম্পটনের রোজ বোল স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ বনাম আফগানিস্তান ম্যাচে টিভি আম্পায়ারের দায়িত্ব পালন করেন এই আম্পায়ার। ওই ম্যাচে আফগান স্পিনার মুজিব-উর রহমানের বলে লিটন দাসের একটি ক্যাচ নিয়ে দারুণ বিতর্কের জন্ম দিয়েছিলেন তিনি। লিটনের ক্যাচটি ধরেন হজরতুল্লাহ শহিদী। টিভি রিপ্লেতে বার বার বলটা মাটি থেকে তুলতে দেখা গেলেও লিটনকে আউট বলে ঘোষণা দেন আলিম দার।

এর আগে ২০১৫ সালের বিশ্বকাপ কোয়ার্টার ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচেও আলিম দার ছিলেন মাঠের আম্পায়ার। ওই ম্যাচে রোহিত শর্মার ক্যাচ বাতিল করে দিয়ে সরাসরি বাংলাদেশের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছিলেন তিনি। সঙ্গে ছিলেন ইংল্যান্ডের ইয়ান গোল্ড।

সেই আলিমদারকে আবারও বাংলাদেশের ম্যাচের দায়িত্বে রাখার আইসিসির এমন সিদ্ধান্তে বিস্মিত হচ্ছে বাংলাদেশের অগণিত ক্রিকেট প্রেমীরা। ২ জুলাই ভারতের বিপক্ষে বার্মিংহ্যামরে এজবাস্টনে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। নিজেদের সেমির সম্ভাবনা টিকিয়ে রাখতে হলে বাংলাদেশের সামনে জয় ছাড়া কোনো বিকল্প নেই। কিন্তু মাঠে ভারতের ১১ জন ক্রিকেটারের সঙ্গে অদৃশ্য টিভি আম্পায়ার হিসেবে দায়িত্ব পালন করা আলিম দারের বিপক্ষেও কি খেলতে হবে টাইগারদের?

বাংলাদেশের প্রায় প্রতিটি বড় বড় ম্যাচেই দায়িত্ব দেওয়া হয় আলিম দারের কাঁধে। সমর্থকদের প্রশ্ন আইসিসি কেন আলিম দারকেই বাংলাদেশের ম্যাচ পরিচালনার দায়িত্ব দিয়ে থাকে!

আজকের পত্রিকা/সিফাত