মাহমুদ উল্লাহ্‌
বিজনেস করেসপন্ডেন্ট

বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর। ছবি: সংগৃহীত

রফতানিতে বাংলাদেশের বস্ত্র খাত বিশ্বের শীর্ষে উঠে আসবে বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক এমপি।

মন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমানে বস্ত্র (পোশাক) রফতানিতে বাংলাদেশ বিশ্বে দ্বিতীয় অবস্থানে। সরকারের লক্ষ্য, বস্ত্র রফতানিতে বাংলাদেশ যেন প্রথম হয়। আমাদের লক্ষ্য এই খাতটি একদিন শীর্ষে উঠে আসবে।’

বুধবার বস্ত্র ও পাটমন্ত্রণালয়াধীন বস্ত্র অধিদফতরের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় মন্ত্রী তার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

বস্ত্র খাতের উন্নয়নে দেশে ফ্যাশন ডিজাইনিং ট্রেনিং সেন্টার স্থাপন করা হবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘ফ্যাশন ডিজাইনিংয়ের মানোন্নয়ন ঘটাতে হবে। ডিজাইনিংয়ে আমাদের আরও উন্নত হতে হবে। শুধু দেশি নয়, বিদেশি ফ্যাশন ডিজাইনকেও রপ্ত করতে হবে। প্রয়োজনে বিদেশ থেকে ডিজাইনার এনে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ জনবল গড়ে তোলা হবে।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমরা আমাদের সব স্টেক হোল্ডারদেরকে নিয়ে আলোচনা করবো। দ্রুত বস্ত্র আইন-২০১৮ বাস্ত্রবায়ন শুরু হবে। এ আইনের আওতায় বস্ত্র খাতের সকল স্টেক হোল্ডারদের নীতিগত সহায়তা প্রদান করা হবে । বস্ত্র শিল্পকে এগিয়ে নিতে প্রয়োজনীয় সব কর্মযজ্ঞ বাস্তবায়ন করবে সরকার।

খাতটিকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনেক স্বপ্ন। আমরা সেই স্বপ্ন পূরণ করব। এ ক্ষেত্রে সকলের সহযোগিতা চাইছি।’

মত বিনিময় সভায় বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মো. মিজানুর রহমান, বস্ত্র অধিদফতরের মহাপরিচালক মোহাম্মদ ইসমাইলসহ অধিদফতরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আজকের পত্রিকা/এমইউ/এমএইচএস/জেবি