বসন্ত মানে রঙের বাহার। ছবি: সংগৃহীত

ঋতুচক্র ঘুরে আবার এলো বসন্ত। বাংলার প্রকৃতিতে ভিন্ন রূপ দেয় এ ঋতু। বসন্ত মানেই গাছের নতুন পাতা, আর চারিদিকে ফুলের মিষ্টি ঘ্রাণ। শুধু কি তাই? বসন্ত মানে রঙের বাহার, বসন্ত মানেই উৎসব। এই দিনে তরুণ তরুণীরা বাসন্তী রঙের পোশাক পরে ঘরের বাইরে বের হোন। এই বসন্তে সাজসজ্জায় ভিন্ন মাত্রা যোগ করতে যা করতে পারেন-

পোশাক

শাড়ির ক্ষেত্রে হলুদ, কমলা ও সবুজ মিশ্রিত রঙ বেছে নিতে পারেন। ছবি: সংগৃহীত

তরুণীদের শাড়ি পরলেই বেশ ভালো লাগে। শাড়ির ক্ষেত্রে হলুদ, কমলা ও সবুজ মিশ্রিত রঙ বেছে নিতে পারেন। শাড়ির সঙ্গে ব্লাউজটা ভিন্ন ধাঁচে বানাতে পারেন। হাতা কাটা কিংবা থ্রিকোয়াটার ব্লাউজ বানাতে পারেন। ব্লাউজের গলা খানিকটা বড় হতে পারে। যদি এক প্যাচে শাড়ি পরতে চান, তাহলে হাত কাটা ব্লাউজ না পরাই ভালো। এক প্যাচে শাড়ি পরলে ব্লাউজের হাতায় ও গলায় কুচি দিতে পারেন। তবে যেই রঙের শাড়িই পরেন না কেনো তার সাথে কনট্রাস্ট করে ব্লাউজের রঙ বেছে নিবেন।

চুলের সাজ

কানের এক পাশে দুই একটা ক্লিপ বেঁধে ফুল গুজে দিতে পারেন। ছবি: সংগৃহীত

উৎসবের দিন চুল খোলা রাখতে পছন্দ করেন অনেকেই। তারপরও কানের এক পাশে দুই একটা ক্লিপ বেঁধে ফুল গুঁজে দিতে পারেন। যদি খোপা করতে চান তাহলে অনেকগুলো ফুল নিয়ে খোপার চারপাশে ভালো করে বেঁধে নিন। এছাড়াও আজকাল বাজারে অনেক ফুলের ব্যান্ড পাওয়া যায়। চুল খোলা রেখে মাথায় সেই ব্যান্ড পরে নিতে পারেন।

মুখের সাজ

শাড়ির সঙ্গে মিলিয়ে কপালে টিপ পড়তে ভুলবেন না। ছবি: সংগৃহীত

সারাদিন বাইরে থাকলে যত কম সাজা যায়, ততোই ভালো। হাল্কা ফাউন্ডেশন দিতে পারেন। চোখের উপর দিতে পারেন সোনালি রঙের আইশেডো। আইলাইনার দিতে পারেন একটু মোটা করে। লিপস্টিক হিসেবে বেছে নিতে পারেন লাল রঙ। শাড়ির সঙ্গে মিলিয়ে কপালে টিপ পরতে ভুলবেন না যেন।

আজকের পত্রিকা/সিফাত