সম্প্রতি ব্রাইডাল শুটে অংশ নেন আকাশকন্যা নানজীবা। জেসিকা মেকওভার স্টুডিও বাই ফারহানা ত্রিনা’, এস এন গ্ল্যামার জোন, ড্রিমস প্লাস বিউটি পার্লার, সানন্দা মেকওভার, আঞ্জারার কভার শুটসহ পর পর ৬ টি ব্রাইডাল শুটে অংশ নেন তিনি। এই শুটের স্ত্রির চিত্রগ্রাহক ছিলেন রুবাইয়াত শাওন, পামান রায়, নুসরাত অনি,শাহিদ খান সুমন, আফজাল হোসেন ও সায়েদ আহমেদ নাদিম ।

৬ টি শুটেই পোশাক পার্টনার ছিল জনপ্রিয় ব্যবসা সফল ব্যান্ড “আঞ্জারা”। আঞ্জারার কভার শুটে স্টাইলে ছিল তাঞ্জিল জনি, মেকওভারে ফারহানুর রহমান ও প্রোডাকশন ছিল ডুগডুগি প্রোডাকশন হাউজ।

বহুমাত্রিক অষ্টাদশী তরূনী নানজীবা খান, একাধারে ট্রেইনি পাইলট,, সাংবাদিক,নির্মাতা, উপস্থাপিকা ,লেখক, ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর, বিএনসিসি ক্যাডেট অ্যাম্বাসেডর, ইউনিসেফ-এর সাবেক তরুণ প্রতিনিধি এবং বিতার্কিক।

এর আগেও বিভিন্ন ব্যান্ডের মডেল হিসেবেও দেখা গেছে তাকে।অস্ট্রালিয়ান এডুকেশন কোম্পানি “স্টাডিনেট” এর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর ও বিজ্ঞাপণের মডেল ছিলেন তিনি। বিজ্ঞাপণেটির রচনা ও নির্দেশনাও তিনিই দিয়েছেন।এছাড়াও মডেল হিসেবে একটি ম্যাগাজিনের কভার গার্ল , রঙ বাংলাদেশ, সেনোরার মত ব্রান্ডের সাথে কাজ করেছেন। তবে এই প্রথম বধূবেশে হাজির হন তিনি।

বর্তমান কাজ নিয়ে তিনি জানান যে, বিমান চালনার প্রশিক্ষণ চলছে সেই সাথে সম্প্রতি শেষ হল সত্য ঘটনা অবলম্বনে এই আকাশকন্যার রচনা ও পরিচালনায় পুর্ণদৈর্ঘ্যের ডকুফিল্ম ‘দি আনওয়ান্টেড টুইন’-এর শুটিং। ডকুফিল্মটিতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন দেশের নাটক ও সিনেমা জগতের একঝাক তারকা।

বিশেষ শিশুদের হাতের তৈরি সামগ্রী নিয়ে প্রতিষ্ঠা করেছেন অনলাইন শপ জীম’স কালেকশন। বিভিন্ন থিম নিয়ে নিজের চেহারায় করেন ফেইস আর্ট।

সামনে অভিনেত্রী হিসেবে দেখা যাবে কিনা সে সম্পর্কে বলেন, একদমই না। ক্যামেরার পিছনেই থাকতে পছন্দ করি। তবে মাঝে মাঝে মডেল হিসেবে কাজ করতে ভালো লাগে। বিশেষ করে সচেতনতামুলক প্রজেক্টগুলোতে। ফ্লাইং ট্রেইনিং ও পরিচালনা নিয়েই বর্তমান ব্যস্ততা।