ঢাকা ব্যাংক কর্মকর্তা রাশেব ।

ফেনীতে ঢাকা ব্যাংকের প্রিন্সিপাল অফিসার ও ক্রেডিট ইনচার্জ গোলাম সাঈদ রাশেব গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট হ্যাকড করে টাকা আত্মসাতের ঘটনায় ফেনী মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ফেনী শাখার ম্যানেজার মো: আকতার হোসাইন সরকার বাদী হয়ে অভিযুক্ত কর্মকর্তা রাশেব ও ক্যাশিয়ার আবদুস সামাদকে আসামি করে ১৯ মার্চ মঙ্গলবার রাতে মামলা দায়ের করেন। রাশেব বিভিন্ন উপায়ে ব্যাংক থেকে অন্তত ৭ কোটি ৮ লাখ ৪০ হাজার টাকা আত্মসাৎ করেছে বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়।

এর আগেই বিকালে রাশেব ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে আত্মসমর্পন করেছে বলে জানা গেছে।

ক্ষতিগ্রস্তরা জানান, দীর্ঘ প্রায় ৯ বছর একই শাখায় কর্মরত থাকায় বিশ্বস্ততার সুযোগ নিয়ে রাশেব অনেক গ্রাহকের কাছ থেকে ঋণ সমন্বয়ের কথা বলে নিজে ও অন্য অফিসারদের দিয়ে সাদা (ব্ল্যাংক) চেক সংগ্রহ করেন।

এ নিয়ে কয়েকজন গ্রাহকের সাথে মনোমালিন্য হলে ১২ মার্চ মঙ্গলবার ব্যাংকের শাখা ম্যানেজার ঊর্ধ্বতনদের লিখিতভাবে বিষয়টি অবগত করেন। পরদিন যথারীতি অফিসে এসে বিষয়টি জেনে সকাল সাড়ে দশটার দিকে ব্যাংক থেকে সরে পড়েন ওই কর্মকর্তা। ওইদিন চেক উত্তোলনের ম্যাসেজ পেয়ে কয়েকজন গ্রাহক ব্যাংকে অভিযোগ করলে বিষয়টি আরো জানাজানি হয়।

শাখার ম্যানেজার মো. আকতার হোসাইন সরকার জানান, ইতিমধ্যে প্রধান কার্যালয় থেকে একটি তদন্ত দল (অডিট টিম) ফেনী শাখায় এসে কাজ শুরু করেছেন। রাশেবের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তার পাসপোর্ট জব্দ করা হয়েছে। প্রধান কার্যালয়ের বিশেষ তদারকিতে বিষয়টি দ্রুত নিষ্পত্তি করার চেষ্টা চলছে বলেও তিনি জানান। ব্যাংকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন কোনো গ্রাহকের টাকা বেহাত হবে না। তাদের টাকা ফেরত দেয়া হবে।

এদিকে রাশেব উধাও হওয়ার পর বৃহস্পতিবার বিকালে তার স্ত্রী ফেনী মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। ডায়েরিতে রাশেব নিখোঁজ বলে উল্লেখ করা হয়। অপরদিকে ব্যাংকের পক্ষ থেকে ১৯ মার্চ মঙ্গলবার রাতে মামলা করা হবে বলে জানা গেছে।

ঢাকা ব্যাংক কর্মকর্তা রাশেব উধাও হওয়ার ঘটনাটি ছিল টপ অব দ্য কান্ট্রি। ওই ব্যাংক ছাড়াও শহরের অপরাপর ব্যাংকের গ্রাহকদের মাঝে উৎকন্ঠা ছড়িয়ে পড়ে। গ্রাহকরা স্ব স্ব ব্যাংকে তাদের আমানতের খোঁজখবর নিতে ভিড় জমায়।

উদ্বুত পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ফেনী জেলা ব্যাংকার্স ফোরাম জরুরি সভা আহ্বান করে। সংগঠনের সভাপতি শামসুল করিম মজুমদারের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক কামাল উদ্দিনের পরিচালনায় উক্ত সভায় ঢাকা ব্যাংক ফেনী শাখার সংগঠিত ঘটনা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। তারা গ্রাহকদের আমানত রক্ষা ও এ ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে স্ব স্ব শাখায় তদারকি বাড়াতে ব্যাংক কর্মকর্তাদের অনুরোধ জানান।

উল্লেখ, রাশেব ফেনী সদর উপজেলার মৌটবী ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামের মৃত আজিজুল হক ভূঞার ছেলে।

আলী হায়দার মানিক, ফেনী/জেবি