ফুলবাড়ীতে মানববন্ধন

দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার দৌলতপুর ইউপি চেয়ারম্যানের অনিয়ম, দুর্নীতি ও ইউনিয়নবাসীর নিকট থেকে জোর জবস্তি অতিরিক্ত হোল্ডিং ট্যাক্স নেয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছেন ওই ইউনিয়নের বাসিন্দারা।

বুধবার বিকালে উপজেলা চত্ত্বরে তারা এ মানববন্ধন করেন।

মানববন্ধন শেষে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুস সালামের নিকট এলাকাবাসীর পক্ষে স্মারক লিপি প্রদান করেন ওই ইউনিয়নের সদস্য আনোয়ারুল ইসলাম। এসময় দৌলতপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থরের বাসীন্দারা উপস্থিত ছিলেন।

ইউপি সদস্য মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, দৌলতপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান পরিষদের মতামতকে উপেক্ষরা করে বিগত কয়েক সপ্তাহ ধরে একটি বে-সরকারী সংস্থা (এনজিও) কে দিয়ে ইউনিয়ন বাসীর নিকট থেকে বাসা বাড়ির কর উত্তোলন করছেন। তিনি অভিযোগ করে বলেন জনসাধারণের সাধ্যের বাহিরে ও সরকার কর্তৃক কর রেজুলেশনের কোন প্রকার নিয়মনীতি তোয়াক্কা না করে তোয়াক্কা না করে চেয়ারম্যান তার নিজ ইচ্ছাকৃত খেয়াল খুশি মত ইউনিয়নবাসীর নিকট থেকে অতিরিক্ত কর উত্তোলন করছেন।

তিনি বলেন প্রতিবছর চেয়ারম্যান তার ইচ্চা মত কর আদায় করলেও সেই করের টাকা ইউনিয়ন পরিষদের নামে ব্যাংকে জমা হয়নি। তিনি বলেন, চেয়ারম্যান করের আদায় কৃত টাকা তার পকেটে রেখে নিজ ইচ্ছামত খরচ করে।

এই ইউপি সদস্য আরো বলেন, চেয়ারম্যান সরকারের সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির উপকার ভোগীর তালিকা করেন অর্থের বিনিময়ে, বয়স্ক ভাতা, বিধুবা ভাতা কার্ড করে দেয়ার জন্য এক একটি উপকার ভোগীর নিকট থেকে মোটা অংকের উৎকোচ গ্রহন করেন, টাকা না পেলে তাকে উপকার ভোগীর তালিকায় নেয়া হয়না।

এছাড়া ৪০ দিনের কর্মসূচির কর্মিদ্বারা নিজ বাড়ীর কাজ করে নেন বলে তিনি অভিযোগ করেন।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে দৌলতপুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল আজিজ বলেন, করের টাকা ব্যাংকে রাখবো না পকেটে রাখবো তা সরকারকে বলবো, এছাড়া কাউকে হিসাব দিতে পারবো না। তিনি বলেন, তার ইউনিয়নে বসবাস করতে হলে কর দিতে হবে।

মেহেদী হাসান উজ্জল/ফুলবাড়ী