মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘নো ল্যান্ডস ম্যান’ সিনেমাতে প্রযোজক হিসেবে যুক্ত হয়েছেন ‘ইন্ডিপেন্ডেন্ট স্পিরিট অ্যাওয়ার্ড’ জয়ী মার্কিন প্রযোজক ও চলচ্চিত্র নির্মাতা শ্রীহরি শাথে এবং সিনেমার প্রধান নারী চরিত্রে অভিনয় করবেন অস্ট্রেলিয়ান থিয়েটার অভিনেত্রী মিশেল মেগান।

প্রযোজক ও নির্মাতা শ্রীহরি শাথে ‘এক হাজারি নোট’ নামক পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণের পাশাপাশি বেশ কিছু ইন্ডিপেন্ডেন্ট সিনেমায় প্রযোজক হিসেবে যুক্ত ছিলেন যেগুলো সানড্যান্স ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল, ভেনিস ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল, টরেন্টো ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল ছাড়াও বিভিন্ন ফেস্টিভ্যালে নির্বাচিত ও পুরস্কৃত হয়েছে। তিনি প্রডিউসারস গিল্ড অব আমেরিকা, ইন্ডিয়ান মোশন পিকচার প্রডিউসারস অ্যাসোসিয়েশন এবং ফিল্ম রাইটার্স অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য। চলচ্চিত্র নির্মাণ ও প্রযোজনার পাশাপাশি শ্রীহরি শাথে যুক্তরাষ্ট্রের কলম্বিয়া ইউনিভার্সিটির স্কুল অব আর্টস-এ সহকারী অধ্যাপক হিসেবে যুক্ত রয়েছেন।

পরিচালক মোস্তফা সরয়ার ফারুকী গত এক বছর ধরে চলচ্চিত্রটির মূল নারী চরিত্রের জন্য অভিনেত্রী খুঁজছিলেন। এরপর নানা বাছাই-যাচাই এর মধ্যে দিয়ে এই চরিত্রে অভিনয়ের জন্য নির্বাচিত হন অস্ট্রেলিয়ান অভিনেত্রী মেগান মিশেল। এই সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে অভিষেক হতে যাচ্ছে মিশেল মেগানের।

উল্লেখ্য ইংরেজি ভাষার চলচ্চিত্র ‘নো ল্যান্ডস ম্যান’ মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর এযাবৎকালের সবচেয়ে বড় প্রজেক্ট, যেখানে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয়ের পাশাপাশি প্রযোজক হিসেবে যুক্ত আছেন ভারতের জনপ্রিয় এবং মেধাবী অভিনেতা নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি।

‘নো ল্যান্ডস ম্যান’ চলচ্চিত্রটির চিত্রনাট্য ইতোমধ্যে একাধিক ফেস্টিভ্যালে ফান্ড জিতে নিয়েছে। এটি ২০১৪ সালে প্রথম বুসান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে এশিয়ান প্রজেক্ট মার্কেটে নির্বাচিত হয়। এছাড়া একই বছর নভেম্বরে ভারতের এনএফডিসি আয়োজিত ফিল্ম বাজারে শ্রেষ্ঠ প্রজেক্টের পুরস্কার লাভ করে এবং ডিসেম্বরে মোশন পিকচার্স অ্যাসোসিয়েশন অব আমেরিকা এবং এশিয়া প্যাসিফিক স্ক্রিন অ্যাওয়ার্ড-এর যৌথ উদ্যোগে দেয়া অ্যাপসা ফিল্ম ফান্ড লাভ করে। এই চলচ্চিত্রের মধ্য দিয়ে প্রযোজনায় আত্মপ্রকাশ ঘটতে যাচ্ছে অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশার। নওয়াজ ও তিশা ছাড়াও ছবিটি প্রযোজনা করছেন বাংলাদেশের স্কয়ার গ্রুপের অঞ্জন চৌধুরী ও মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ছবিয়াল। আগামী বছরের শুরুতে সিনেমাটির চিত্রায়ন শুরু হবে, যা চলবে আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়ায় ও ভারতের বিভিন্ন লোকেশনে।